আগৈলঝাড়ায় পিএসসি ও পিইসি পরীক্ষায় প্রথম দিনে ৭৮ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত

0
81

 

আগৈলঝাড়া প্রতিনিধি।।

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় কঠোর নিরাপত্তা আর নকলমুক্ত পরিবেশে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষার প্রথম দিনে ৭৮ জন পরীক্ষাথী অনুপস্থিত। পরীক্ষা কেন্দ্র সূত্র মতে জানাগেছে, আগৈলঝাড়া উপজেলায় ১০ টি কেন্দ্রে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) পরীক্ষার প্রথম দিনে মোট ২৮৫৯ জন পরীক্ষার্থী ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষার প্রথম দিনে মোট ১৩৮ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেয়ার কথা ছিল।

সেখানে গতকাল রবিবার প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) পরীক্ষায় ইংরেজী বিষয়ে ২৮০৪ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষায় ইংরেজী বিষয়ে ১১৫ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ।

প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) পরীক্ষায় মোট অনুপস্থিত পরীক্ষার্থী সংখ্যা ৫৫ জন ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষায় মোট অনুপস্থিত পরীক্ষার্থী সংখ্যা ২৩ জন। সর্বমোট অনুপস্থিত পরীক্ষার্থীদের সংখ্যা ছিল ৭৮ জন ।

সূত্র মতে, প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) পরীক্ষায় গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৪৪০ জনের মধ্যে ০৯ জন অনুপস্থিত, নগরবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১৮৯ জনের মধ্যে ৬ জন অনুপস্থিত, বাশাইল হাই সংলগ্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৪৫২ জনের মধ্যে ৪ জন অনুপস্থিত, আহুতি বাটরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১৫৪ জনের মধ্যে ২ জন অনুপস্থিত, আগৈলঝাড়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২৭৬ জনের মধ্যে ৩ জন অনুপস্থিত, কোদালধোয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ১৯৪ জনের মধ্যে ৩ জন অনুপস্থিত, নাঘিরপাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২৩০ জনের মধ্যে ৯ জন অনুপস্থিত, বাগধা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৩৫১ জনের মধ্যে ১১ জন অনুপস্থিত, বারপাইকা হাই সংলগ্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২২২ জনের মধ্যে ২ জন অনুপস্থিত, ছয়গ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৩৫১ জনের মধ্যে ৬ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল ।

অন্যদিকে ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষায় গৈলা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২৮ জনের মধ্যে ৫ জন অনুপস্থিত, বাগধা মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৪২ জনের মধ্যে ৫ জন অনুপস্থিত, ছয়গ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৬৮ জনের মধ্যে ৭ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অশ্রাফ আহমেদ রাসেল ও পরীক্ষাকেন্দ্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা পরীক্ষা কেন্দ্রে নকল মুক্ত পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।