আ’লীগের ঘরে বিএনপির বাসা!

0
221

আল আমিন গাজী ॥ একটি গ্রামীণ প্রবাদ আছে শালিসি যতোই করুক না কেন ‘বড় তাল গাছটা কিন্তু আমার’। সেই কথার সাথে মিলে গেল বরিশাল বিভাগীয় ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়ন এর কার্যক্রম।

বরিশাল বিভাগীয় ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের বির্তকিত সাধারন সম্পাদক বাবুল শরীফ অবৈধ ভাবে জমি দখল, ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নে নিজের আধিপত্য বিস্তার সহ নানান অপর্কমের মুল হুতা এবার বরিশাল মহানগর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জিয়া উদ্দিন সিকদারকে ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সদস্য পদ প্রদান করে আবারো আলোচনা সমালোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে বাবুল শরীফ।

বাবুল শরীফ নিজেকে আওয়ামীলীগের অঙ্গ সংগঠনের শ্রমিক নেতা দাবী করে নিজের স্বার্থ হাসিল করাটাই হচ্ছে বাবুলের মূল উদ্দেশ্য। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বরিশাল বিভাগীয় ট্রাক শ্রমিক রেজি নং- ৮২৪ ইউনিয়নের সভাপতি পদে রয়েছে বরিশাল মহানগর বানিজ্যিক বিষয় সম্পাদক নিরব হোসেন টুটুল, সাধারন সম্পাদক পদে রয়েছে ইমান আলী বাবুল শরীফ।

তবে একটি সূত্রে জানাযায়, ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নে নিরব হোসেন টুটুলকে গত ২০১৬ সালে সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব দেয়া হয়। শ্রমিকদের অভিযোগ সংগঠনটি মহানগরের আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী নেতারা পরিচালনা করলেও সেখানে বিএনপির প্রভাবশালী নেতা শ্রমিক না হয়ে কি ভাবে শ্রমিক সদস্য হন। বিষয়টি দুঃখজনক বলে সাধারণ শ্রমিকদের অভিমত। শ্রমিকদের অভিযোগ আওয়ামীলীগের সাইনবোর্ড লাগিয়ে ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক বাবুল শরীফ লালন পালন করছেন বিএনপির নেতাকর্মীদের।

নানা অভিযোগের বিক্তিতে সরেজমিন অনুসন্ধানে বেড়িয়ে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য, চলতি বছরে ২২ জানুয়ারি বরিশাল মহানগর বিএনপির ভারপাপ্ত সাধারন সম্পাদক জিয়া উদ্দিন শিকদারকে বরিশাল বিভাগীয় ট্রাক শ্রমিক রেজি নং-৮২৪ ইউনিয়নের একটি সদস্য কার্ড দেন বাবুল শরীফ। আর সেই কাডে বাবুল শরীফের স্বাক্ষর ও ইউনিয়ের সিল দেয়া রয়েছে। কার্ড দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন বাবুল শরীফ নিজেই। এদিকে এই কাডের বিষয় কিছুই জানেন না বলে মন্তব্য করেন জিয়া উদ্দিন শিকদার।

তিনি জানান,তার কোন সদস্য কার্ড শ্রমিক ইউনিয়নে নেই। আর তিনি কোন ট্রাক চালক না। তবে যদি কেউ ভালবেসে করে সেটা তার বিষয়। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ট্রাক শ্রমিক জানান,্ বাবুল শরীফ আ-লীগের সাইনবোর্ড লাগিয়ে বিএনপির নেতাদের সাথে সর্ম্পক রাখার জন্য এই কাড দিয়েছেন।

কারন বর্তমানে জাতীয় সংসদ নির্বাচন চলছে যদি কোন রকম আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসতে না পাড়লে বরিশাল ছাড়া হতে পারে বাবুলের। এই জন্যই বিএনপির নেতাদের সাথে সু-সম্পার্ক রাখতে বরিশাল মহানগর বিএনপির (ভারপাপ্ত) সাধারন সম্পাদক জিয়া উদ্দিন শিকদারকে সদস্য কাড প্রদান করেন। এদিকে ওই ইউনিয়নের বেশিরভাগ পদে দায়িত্বে রয়েছেন বিএনপির নেতা-কর্মিরা। আর আ-লীগের ছত্রছায়ায় থেকে সুযোগ বুঝে বর্তমান সরকার বিরোধী নানা কর্মকান্ডে লিপ্ত থাকার অভিযোগ উঠে ওই সকল শ্রমিক নেতাদের বিরুদ্ধে।

আর ওই ইউনিয়নের বিএনপি নেতারা সরকার বিরোধী কোন কর্মকান্ডে আইনী ঝামেলা হলে আ-লীগের নেতাদের দিয়ে সেই ঝামেলা মুক্ত করে। তবে এ বিষয় বরিশাল বিভাগীয় ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের অফিস সহকারী ও চরমোনাই ইউনিয়নের শ্রমিকদলের সাধারন সম্পাদক মাইনুল ইসলাম জানায়, বাবুল শরীফ দিনের আলোতে আ-লীগ ও রাতের আধাঁরে বিএনপি। কারন যে দল ক্ষমতায় আসুক না কেন, সেই দলে নেতাই বাবুল শরীফ। তিনি আরো জানায়, জিয়া উদ্দিন শিকদারকে চলতি বছরে সদস্য কার্ডের বিষয় কেউ জানে না।

অপর দিকে অভিযোগের আরো পাওয়া যায়, সরকার বিরোধী আন্দোলন জ্বালাও পোড়াও, চলন্ত বাসে মানুষ হত্যাসহ অর্থ যোগানদাতা হিসাবে কাজ করেন বিভাগীয় ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের অফিস সহকারী ও চরমোনাই ইউনিয়নের শ্রমিকদলের সাধারন সম্পাদক মাইনুল ইসলামসহ একাধিক নেতাকর্মীরা। তবে এ বিষয় বিভাগীয় ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক ইমান আলী বাবুল শরীফ মুঠোফোনে জানায়, তিনি বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত না।

আর মহানগর বিএনপির ভারপাপ্ত সম্পাদক জিয়া উদ্দিন শিকদারকে কার্ড দিয়ে উপকার করছেন। তবে বিষয়টি স্বীকার করে তিনি আরো জানায়, বরিশাল মহানগর শ্রমিকলীগের সহ সভাপতি হিসাবে দায়িত্বে রয়েছেন। তা ছাড়া বিষয়টি তিনি ধামা চাপা দিতে প্রতিবেদকের প্রশ্নের উল্টো জবাব দিয়ে ফোন কেটে দেয়। এবিষয় বরিশাল মহানগর আ’লীগের সভাপতি গোলাম আব্বাস চৌধুরী (দুলাল) তিনি এ বিষয় অবগত নয় বলে কোন মন্তব্য করতে নারাজ।