এবার আমরা রেল লাইন নিয়ে যাবো পায়রা বন্দরে -প্রধানমন্ত্রী

0
35
hdr

এম জাকির হোসাইন, কুয়াকাটা প্রতিনিধি।।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ সব সময় উন্নয়ন বঞ্চিত ছিল। তাই আমার সরকার এ অঞ্চলের জন্য ধারাবাহিকভাবে উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছে। বিভিন্ন উন্নয়নের পাশাপাশি কলাপাড়া উপজেলায় পায়রা বন্দর স্থাপন করেছি। এবার আমরা রেল লাইন নিয়ে যাব পায়রা বন্দরে। রবিবার সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে কুয়াকাটায় দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশন উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন।

দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল ‘সি-মি-উই-৫’ উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে অনলাইনে এর যাত্রা শুরু হয়েছে। ফলে তথ্যপ্রযুক্তি ভিত্তিক মধ্যম আয়ের দেশ বিনির্মাণে গৃহীত রূপকল্প-২০২১ বাস্তবায়নে এক ধাপ এগিয়ে গেলো বাংলাদেশ।

এ সময় কুয়াকাটা প্রান্তে পটুয়াখালী জেলা প্রশাসক ড. মাছুমুর রহমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, পটুয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী এ্যাড. মো. শাহজাহান মিয়া, সাবেক প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মাহাবুবুর রহমান এমপি, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব খান মোশারেফ হোসেন ও উপকারভোগী লতাচাপলী ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার উদ্যোক্তা মো. মঞ্জুরুল আলম প্রমুখ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার মো. শহিদুজ্জামান, বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেডের (বিএসসিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মনোয়ার হোসেন, বরিশাল রেঞ্জের ডিআইজি শফিকুল ইসলাম বিপিএম, কলাপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালেব তালুকদার, ইউএনও এবিএম সাদিকুর রহমানসহ জেলা উপজেলার বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারী কর্মকর্তা, রাজনীতিক এবং বিভিন্ন গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল কোম্পানি লিমিটেডের (বিএসসিসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. মনোয়ার হোসেন বলেন, দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল উদ্বোধনের মাধ্যমে ২০০ জিবিপিএস (গিগাবিট পার সেকেন্ড) ব্যান্ডউইথ পাওয়া যাবে। তিনি আরো বলেন, ‘সি-মি-উই-৫ কনসোর্টিয়াম পর্যায়ক্রমে আমাদেরকে ১ হাজার ৫০০ জিবিপিএস ব্যান্ডউইথ সরবরাহ করবে।

এছাড়া সূত্রে জানা গেছে, ‘সি-মি-উই-৫’ হলো দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া-মিডল ইস্ট-ওয়েস্টার্ন ইউরোপ-৫-এর সংক্ষিপ্ত রূপ। এই কনসোর্টিয়ামে রয়েছে মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড, মিয়ানমার, বাংলাদেশ, ভারত, শ্রীলঙ্কা, পাকিস্তান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, জিবুতি, ইয়েমেন, সৌদি আরব, মিসর, ইতালি ও ফ্রান্স।

উল্লেখ্য, কুয়াকাটার অদূরে গোড়াআমখোলাপাড়ায় ১০ একর জমিতে নির্মিত দ্বিতীয় সাবমেরিন ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনটির কাজ শুরু হয় ২০১৩ সালের শেষের দিকে। ৬৬০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত প্রকল্পটিতে সরকার ১৬৬ কোটি ও বিএসসিসিএল ১৪২ কোটি টাকা ব্যয় করেছে।