কালিয়ায় প্রকাশ্য দিবালোকে যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে হত্যা

0
200

শোভন, নড়াইল প্রতিনিধি ।।

পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে নড়াইলের কালিয়া উপজেলার নড়াগাতিতে তরিকুল ইসলাম শেখ (৩৮) নামে এক যুবলীগকর্মীকে প্রকাশ্য দিবালোকে কুপিয়ে হত্যা করেছে সন্ত্রাসী হাসমত বাহিনী। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার কলাবাড়িয়া গ্রামে ঘটেছে ওই নৃশংস হত্যা কান্ডের ঘটনা।

নিহত তরিকুল ইসলাম ওই গ্রামের মৃত ইস্রাফিল শেখের ছেলে। সন্ত্রাসীদের হামলায় আরও চার জন আহত হয়েছে। আহতদেরকে কালিয়া ও খুলনা মেডিকের কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়ে। ঘটনার পর থেকে এলাকায় হাসমত বাহিনীর হামলা আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। ঘটনা স্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

নিহতের ভাই হবিবার সহ প্রত্যক্ষদর্শীরা অভিযোগ করে বলেছেন, কালিয়া উপজেলার পূর্বাঞ্চলের ত্রাস বলে পরিচিত হাসমত বাহিনী প্রধান কলাবাড়িয়া গ্রামের মৃত শাহাবুদ্দিন তালুকদারের পুত্র ও কলাবাড়িয়া ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি হাসমত তালুকদারের কাছে পাওনা টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে বুধবার রাত ৮ টার দিকে কলাবাড়িয়া বাজারে নিহত তরিকুল ও তার ভাই হবিবারের সাথে কথা কাটাকাটি হয়।

তারই জের ধরে বৃহস্পতিবার সকাল ৮ টার দিকে হাসমত বাহিনীর অর্ধশতাধিক স্বশস্ত্র লোক জয় বাংলা শ্লোগান দিতে দিতে অর্তকিতে তরিকুল শেখের বাড়িতে হামলা চালায়। এবং তাকে উপর্যুপরি কুপিয়ে হত্যা করে। ওই সময় তকিুলকে উদ্ধার করতে গেলে একই গ্রামের মুক্তার শেখ (৪০), এনায়েত শেখ (৩২) এবং শের আলী (৫০) সহ চার জনকেও সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে আহত করে। আহতদের কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পুলিশ ও এলাকাবাসিরা জানিয়েছে, হাসমত তালুকদার ও তার বাহিনীর বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের রগ কর্তনসহ কয়েকটি মামলা রয়েছে।

নড়াগাতি থানার ওসি মাহাবুবুর রহমান মিনে বলেছেন, ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। অভিযোগ পেলে মামলা দায়ের করা হবে। সন্ত্রাসী হাসমত ও তার সহযোগীদের ধরতে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে।