ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে সাড়ে ৯ বিলিয়ন ডলার

0
41

সময়ের বার্তা ডেস্ক।।

গেল অর্থবছর পণ্য বাণিজ্যে সামগ্রিক ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে সাড়ে ৯ বিলিয়ন ডলার, যা গত সাত বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ অর্থনীতির গবেষক জায়েদ বখত বলছেন, অর্থবছরের শেষ দিকে রপ্তানি আয়ের চেয়ে আমদানি ব্যয় বেশি বাড়ায় এই ঘাটতি তৈরি হয়েছে।

বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংক বৈদেশিক লেনদেন ভারসাম্যের হালনাগাদ যে তথ্য প্রকাশ করেছে তাতে দেখা যায়, গত ৩০ জুন শেষ হওয়া ২০১৬-১৭ অর্থবছরে বিভিন্ন পণ্য আমদানিতে বাংলাদেশ মোট চার হাজার ৩৪৯ কোটি ১০ লাখ ডলার ব্যয় করেছে। এই সময়ে বিভিন্ন দেশে পণ্য রপ্তানি করে বাংলাদেশের আয় হয়েছে তিন হাজার ৪০১ কোটি ৯০ লাখ ডলার। এই হিসাবে বাণিজ্য ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়াচ্ছে ৯৪৭ কোটি ২০ লাখ ডলার, যা আগের অর্থবছরের চেয়ে ৪৭ শতাংশ বেশি।

২০১৫-১৬ অর্থবছরে বাণিজ্য ঘাটতির পরিমাণ ছিল ৬৪৬ কোটি ডলার।

এর আগে ২০১০-১১ অর্থবছরে পণ্য বাণিজ্যে বাংলাদেশের ঘাটতির পরিমাণ ছিল ৯৯৩ কোটি ৫০ লাখ ডলার; সেটাই দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ বাণিজ্য ঘাটতি।

গত অর্থবছরে আমদানি ব্যয় বেড়েছে ৯ শতাংশ। রপ্তানি আয় বেড়েছে ১ দশমিক ৭৩ শতাংশ।

বাংলাদেশ উন্নয়ন গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (বিআইডিএস) গবেষণা পরিচালক জায়েদ বখত বলেন, জ¦ালানি তেল এবং খাদ্যপণ্যের দাম কম থাকায় ২০১৫-১৬ অর্থবছর এবং তার আগের দুই অর্থবছরে আমদানি ব্যয় তুলনামূলকভাবে কম ছিল। অন্যদিকে রপ্তানি আয় সে সময় বাড়ছিল বলে বাণিজ্য ঘাটতি সহনীয় পর্যায়ে ছিল।

কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে জ¦ালানি তেলের দাম ৫৫ থেকে ৬০ ডলারে ওঠানামা করায় এবং বেশ কয়েকটি বড় প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম আমদানি বেড়ে যাওয়ায় বাণিজ্য ঘাটতি বাড়ছে বলে মনে করেন তিনি।

সেবা খাতে ঘাটতি ৩.২৮ বিলয়ন ডলার

ঘাটতি বেড়েছে সেবা খাতেও। ২০১৬-১৭ অর্থবছরের সেবা বাণিজ্যে ঘাটতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩২৮ কোটি ৪০ লাখ ডলার। ২০১৫-১৬ অর্থবছরে ঘাটতি ছিল ২৭০ কোটি ৮০ লাখ ডলার।

মূলত বীমা, ভ্রমণ ইত্যাদি খাতের আয়-ব্যয় হিসাব করে সেবা খাতের বাণিজ্য পরিমাপ করা হয়।

বেড়েছে এফডিআই

বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাবে গত অর্থবছরে মোট ২৯৮ কোটি ৫০ লাখ ডলারের সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ (এফডিআই) পেয়েছে বাংলাদেশ, যা গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ১৯ দশমিক ৩০ শতাংশ বেশি।

এর মধ্যে নিট এফডিআই এসেছে ১৭০ কোটি ৬০ লাখ ডলার। আগের বছরে এসেছিল ১২৮ কোটি ৫০ লাখ ডলার।

এ হিসাবে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে নিট এফডিআই প্রবাহ বেড়েছে ৩৩ শতাংশ।

বাংলাদেশে বিভিন্ন খাতে মোট যে এফডিআই আসে তা থেকে বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান মুনাফার অর্থ নিয়ে যাওয়ার পর যে অর্থ অবশিষ্ট থাকে তাকেই নিট এফডিআই বলা হয়।