চট্টগ্রাম ১৯ জানুয়ারি ভিটামিন “এ” প্লাস ক্যাম্পেইন (২য় রাউন্ড)

0
28

চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ আগামী ১৯ জানুয়ারি নগরীতে জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন (২য় রাউন্ড) অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে আজ রবিবার সকালে সদরঘাট চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন জেনারেল হাসপাতাল মিলনায়তনে অবহিতকরণ ও পরিকল্পনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। চসিক প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় চসিক শিক্ষা, স্বাস্থ্য স্ট্যান্ডিং কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক প্রধান অতিথি এবং চট্টগ্রাম বিভাগের সহকারি পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, চসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ আলী বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। সভায় অন্যান্যের মধ্যে ঢাকা শিশু হাসপাতালের সহকারি প্রফেসর ডা. রিজোয়ানুল আহম্মদ, চসিক মেমন হাসপাতালের ইনচার্জ ডা. আশিষ কুমার মুখার্জী, জোনাল মেডিকেল অফিসার ডা. ইমাম হোসেন রানা, ডা. সুমন তালুকদার, ডা. মুজিবুল আলম চৌধুরী, ডা. রফিকুল ইসলাম ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধি ডা. সরওয়ার আলম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে চসিক জোনাল মেডিকেল অফিসার ডা. হাসান মুরাদ চৌধুরী জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন এর উপকারিতা ও অপকারিতা সম্পর্কে পাওয়ার পয়েন্টে প্রেজেন্টেশন করেন। সভা সঞ্চালনায় ছিলেন চসিক জোনাল মেডিকেল অফিসার ডা. তপন কুমার চক্রবর্ত্তী। অনুষ্ঠানে ডাক্তার, টিকাদানকর্মী, স্বাস্থ্য সহকারী, এনজিও প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক বলেন, শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ প্লাস এর অভাব জনিত সম¯্রা দূরীকরণে এই কর্মসচি সফলভাবে সম্পন্ন করতে হবে। তিনি এই কর্মসূচি সম্পর্কে ব্যাপক সচেতনতা সৃষ্টির জন্য মসজিদ, মন্দির, গীর্জা ও পেগোডা ইত্যাদী ধর্মীয় উপসনালয়ে পত্র প্রেরণ, ব্যাপক মাইকিং, বিজ্ঞপ্তি ও ক্যাবল নেটওয়ার্কে প্রচারের উদ্যোগ নিতে সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ জানান। কোনো শিশু যাতে এই কর্মসূচি থেকে বাদ না পরে সেদিকে বিশেষ নজর রাখারও পরামর্শ দেন জনাব ডিউক। উল্লেখ্য ওইদিন সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে স্থায়ী/অস্থায়ী ১২৮৮টি কেন্দ্রে ৬-১১ মাস বয়সী ৮০ হাজার শিশুকে একটি করে নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল এবং ১২-৫৯ মাস বয়সী ৪ লক্ষ ৩০ হাজার শিশুকে ১টি করে উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। তবে সকল শিশুকে অবশ্যই ভরা পেটে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানোর জন্য যথাসময়ে নিকটস্থ স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে আসতে প্রধান অতিথি অভিভাবকদের প্রতি অনুরোধ জানান।