চার হাজার টাকা ঘুষ নেয়ার সময় ভূমি কর্মকর্তা আটক

0
137

সময়ের বার্তা ডেস্ক।

ময়মনসিংহে এক ভূমি কর্মকর্তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত। বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলার ত্রিশালে চার হাজার টাকা ঘুষ নেয়ার সময় সদর ইউনিয়নের সহকারী ভূমি কর্মকর্তা হেলাল উদ্দিনকে আটক করেন দুর্নীতি দমন কমিশনের কর্মকর্তারা। পরে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হলে হাকিম জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

উপজেলার ত্রিশাল বাজার হিন্দু পল্লীর বাসিন্দা অমর চন্দ্র রায়ের ছেলে অজয় চন্দ্র রায় তার নামে পূর্বের মাঠ জরিপের নামজারি ও ভূমি কর পরিশোধ সংক্রান্তে রেকর্ডপত্র দাখিল করে নতুন জরিপের ওপর নামজারি করার আবেদন করেন।

আবেদনের সময় ১ হাজার ৩শত টাকা নেয়ার পর সকল রেকর্ডপত্র সঠিক থাকার পরও দুটি নামজারির আবেদন প্রস্তাব আকারে সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবরে প্রেরণ করার জন্য চার হাজার টাকা দাবি করেন এই ভূমি কর্মকর্তা। টাকা না দেয়ায় সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবরে নামজারি প্রস্তাব প্রেরণ করেননি।

অজয় চন্দ্র রায় মঙ্গলবার দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত ময়মনসিংহ জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক বরাবরে একটি অভিযোগ করেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে অজয় চন্দ্র রায়ের কাছ থেকে ঘুষ গ্রহণের সময় দুদকের ফাঁদ টিমের কর্মকর্তারা ইউনিয়নের সহকারী ভূমি কর্মকর্তা হেলাল উদ্দিনকে আটক করেন। এ সময় তার পকেট থেকে আরো ২৬ হাজার ৯শ টাকা জব্দ করা হয়, যার সন্তোষজনক কোন ব্যাখ্যা তিনি দিতে পারেননি। পরে তাকে আদালতে সোপর্দ করে দুদক।

আটক হেলাল উদ্দিন ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার ভাটিসাভার গ্রামের মৃত হাফিজ উদ্দিন সরকারের ছেলে।

দুদকের সমন্বিত ময়মনসিংহ জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. মাসুদুর রহমান জানান, অভিযোগের ভিত্তিতে ঘুষ নেয়ার সময় ওই কর্মকর্তাকে ফাঁদ টিম হাতেনাতে আটক করে। ওই সময় তার পকেট থেকে আরো ২৬ হাজার ৯শ টাকা জব্দ করা হয়।