ছাত্রলীগের সম্পাদক সুজনের সহযোগীতায় টুলুর ২কোটি টাকার রেনু পোনা জব্দ ও ১৮ জনকে জেল

0
908

স্টাফ রিপোর্টার ।।
বরিশালে অভিযান চালিয়ে দুই ট্রাক ভর্তি অবৈধ গলদা চিংড়ির পোনা জব্দ করেছে কোস্টগার্ড । আজ ২২ মে সকাল ৯ টার দিকে রুপাতলী শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত সেতু সংলগ্ন এলাকা থেকে সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশিকুর রহমান সুজনের সহযোগীতায় পোনাগুলো জব্দ করা হয়। জব্দকৃত রেনু ও জড়িতদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের আওতায় আনা হয়।

এসময় ভ্রাম্যমাণ মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট এস এম রবীন শীষ। কোস্টগার্ড সদস্য জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সকালে অভিযান চালিয়ে দুটি ট্রাকে ৭৩ পিচ ড্রামে ৪০ লাখের অধিক গলদা চিংড়ির পোনা জব্দ করা হয়। এসময় গলদা চিংড়ি পরিবহন ও পাচার কাজে জড়িত থাকার অপরাধে ১৮ জনকে আটক করা হয়। আটককৃতরা জানান ভোলার বিভিন্ন এলাকা থেকে রেনু পেনাগুলো সংগ্রহ করে সেগুলো নদী পথে বরিশালের বাকেরগন্জ পেয়ারপুর ব্রিজ, ফেরিঘাট, নেহালগন্জ, লাহারহাট, নলছিটিসহ বিভিন্ন পয়েন্ট থেকে ট্রাকে তুলে পোর্ট রোড এলাকার রনি ভাই ও হারুনের মাধ্যমে সেগুলো পাঠানো হয় খুলনার পেয়ারপুর, বাঘেরহাটসহ বিভিন্ন এলাকায়।

টুঙ্গিপাড়ার টুলু এসব মাছ পাইকারী কিনে বিক্রি করেন। ব্যাপারে টুলু বলেন বরিশালের রনিকে ড্রাম প্রতি চার হাজার দুই শত টাকা দেয়া হয়। সেই টাকার মাধ্যমে রনি ও হারুন সব মহল ম্যানেজ করেন। হারুন ফোন রিসিভ না করলেও রনি জানান আমি টাকা একা নেই না। রাজনৈতিক নেতা, স্থানীয় প্রশাসন, রাব কোস্টগার্ড, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন মহলকে টাকা দিতে হয়।

আটককৃতদের দন্ডবিধি আইনের ১৮৬০ এর ১৮৮ ধারা মোতাবেগ ১৮ জন অপরাধীকে ৩ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। এসময় পরিবহন কাজে ব্যবহারীত টুঙ্গিপাড়ার টুলুর ট্রাক দুটি জব্দ করা হয় এবং ড্রামভর্তি গলদা চিংড়ির পোনা জব্দ করে বরিশাল ডিসিঘাট কীর্তনখোলা নদীতে অবমুক্ত করা হয়। এসময় প্রসিকিউশন প্রদান করেন মৎস্য কর্মকর্তা ইলিশ, বিমল চন্দ্র দাস।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বরিশাল বিভাগীয় প্রদান মৎস্য উপ-পরিচালক, ড. মোঃ অলিয়ুর রহমান, এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট জেলা প্রশাসক কার্যালয় বরিশাল, সুব্রত বিশ্বাস দাস, সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সঞ্জীব সরন্যামত। অভিযানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় সহযোগিতা করেন কোস্টগার্ড এবং কোতয়ালী মডেল থানা পুলিশ সদস্যরা। এই অভিযান জনস্বার্থে অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট।