ডাকাতিয়ায় লঞ্চ চলাচলে নিষেধাজ্ঞা

0
145

সময়ের বার্তা ডেস্ক।।

চাঁদপুর: চাঁদপুরের ডাকাতিয়া নদীতে যাত্রীবাহী লঞ্চ চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে বিআইডব্লিউটিএ।

শহরের নতুনবাজার-পুরাণবাজার সেতুর তলদেশ ঝুঁকিপূর্ণ ও ডাকাতিয়া নদীতে ব্যাপক পানি বৃদ্ধির কারণে ইচলী-চাঁদপুর-ঢাকা নৌ-পথে লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

যাত্রীবাহী লঞ্চগুলোর মাস্টারদের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল (যাত্রী পরিবহন) সংস্থা ইচলী লঞ্চঘাট থেকে লঞ্চ চলাচল বন্ধ ঘোষণা করে।

ইচলী-চাঁদপুর-ঢাকা নৌ-রুটে প্রতিদিন ৫শ সহস্রাধিক যাত্রী বহনকারী লঞ্চগুলোর মাস্টাররা লিখিতভাবে গত ১১ জুন চাঁদপুর নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের উপ-পরিচালক বরাবর লিখিত অভিযোগ দেন।

সেখানে তারা উল্লেখ করেন, ডাকাতিয়া নদীতের প্রচুর পানি বৃদ্ধির কারণে নদীর পুরাণবাজার-নতুনবাজার সংযোগ সেতুর তলদেশ দিয়ে যাত্রীবাহী নৌ-যানগুলো যাতায়াতকালে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটে যাওয়ার সম্ভাবনা বিদ্যমান ও সেতুটির জন্য মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ।

এ প্রেক্ষিতে বিআইডব্লিউটিএ’র চেয়ারম্যান বিষয়টি গুরুত্বপূর্ণ হওয়ায় এক অফিস আদেশের মাধ্যমে ইচলী লঞ্চঘাটের সঙ্গে চাঁদপুর-ঢাকা নৌ-রুটের সব লঞ্চ সাময়িকভাবে চলাচল বন্ধ ঘোষণার আদেশ প্রদান করে।

বিআইডব্লিউটিএ’র উপ-পরিচালক ও চাঁদপুর নৌ-বন্দর কর্মকর্তা মো. মোবারক হোসেন ওই ফ্যাক্সবার্তা ও চিঠি পেয়েছেন। সেখানে বলা হয়েছে, ডাকাতিয়া নদীর পানি কমে গেলে পুনরায় লঞ্চ চলাচল করতে পারবে।

ইচলী ঘাটের সঙ্গে লঞ্চ চলাচল বন্ধ থাকায় দক্ষিণাঞ্চলীয় ও ঢাকা থেকে চাঁদপুর-ইচলী ঘাটে আসা শত শত যাত্রী দুর্ভোগে পরবে। ইচলী থেকে ফরিদগঞ্জ, গল্লাক, রায়পুর ও লক্ষ্মীপুরের অনেক যাত্রী চলাচল করে। ফলে ওইসব যাত্রীদের চাঁদপুর লঞ্চঘাট থেকে সিএনজি স্কুটারে ইচলী যেতে কমপক্ষে ২শ টাকা ভাড়া বেশি গুনতে হবে।