ঢাকায় সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা এখনও বলবৎ

0
157

সময়ের বার্তা ।।

বিএনপি ঢাকায় ২২ ফেব্রুয়ারি সমাবেশের অনুমতি পাবে কি না- এটি মহানগর পুলিশ কমিশনার ঠিক করবেন বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তবে ঢাকায় সভা-সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়নি-এই বিষয়টিও জানিয়েছেন তিনি।

শনিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

বিকালে শহরের উস্তাদ আলাউদ্দিন খাঁ পৌর মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ূন কবিবের আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ জীবন স্মৃতি-২ এর প্রকাশনা উৎসবে প্রধান অতিথি হয়ে সেখানে যান মন্ত্রী।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার শান্তির প্রতিবাদে বিএনপির ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অথবা নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। তবে বিএনপি এখনও সমাবেশের অনুমতি পায়নি।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার রায়ের আগে সেই দিন সকাল থেকে রাজধানীতে সব ধরনের সভা-সমাবেশ বা জমায়েতের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন ঢাকার পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেয়া হবে কি না- জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘সম্প্রতি সভা সমাবেশের উপর ডিএমপি কমিশনার যে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে- তা এখনও প্রত্যাহার হয়নি। সেটা প্রত্যাহার হলে কোথায় সমাবেশ করলে শান্তি শৃঙ্খলা বিঘ্নিত হবে না তা পুলিশ কমিশনার স্থির করবেন।’

সমাবেশের অনুমতি দিলে কোথায় দেয়া হবে-এমন প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, স্থান নির্ধারণ করবেন ডিএমপি কমিশনার।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিএনপির কোনো শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে পুলিশ বাধা দিচ্ছে না। সরকার কোন শান্তিপূর্ণ সমাবেশ মিটিং সেটা রাজনৈতিক হোক সামাজিক হোক কোনোটাতেই বাধা দিচ্ছে না। পারমিশন দেয়ার সময় আমাদের শর্তে থাকছে যাতে কর্মসূচি শান্তিপূর্ণভাবে করা হয়।

পৌর মেয়র নায়ার কবিরের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য র আ ম উবায়দুল মুকতাদির চৌধুরী, পুলিশের চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মো. মনিরুজ্জামান, জেলা প্রশাসক রেজওয়ানুর রহমান, পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন সরকার প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।