দুই কেন্দ্রে ইভিএম চান সাদিক আবদুল্লাহ

0
20

বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দুই কেন্দ্রে ইভিএম (ইলেট্রনিক ভোটিং মেশিন) চেয়ে আবেদন করেছেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। তার নিজ ওয়ার্ডের (১৯ নম্বর) জগদিস স্বরস্বতী গার্লস স্কুল ও সরকারি বরিশাল কলেজ কেন্দ্রে ইভিএম রাখার আবেদন করেছেন তিনি।

মঙ্গলবার (১৭ জুলাই) বিকাল সাড়ে ৪টায় বরিশাল সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও আঞ্চলিক নির্বাচন অফিসারের কাছে এই আবেদন করা হয়।

এদিকে বরিশালে ৩০ জুলাই জনগণের ভোট উৎসব হবে বলে মন্তব্য করেছেন সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। মহানগর আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন,‘বরিশালের জনগণ উৎসবমুখর পরিবেশে বরিশালের উন্নয়নের বিবেচনা করে যাকে খুশি তাকে ভোট দেবে, এখানে আমাদের পক্ষ থেকে কারও ভোটের অধিকার হরণ করা হবে না।’ সারাদিন নগরীর বিভিন্ন এলাকায় প্রচারণার সময় তিনি এসব কথা বলেন।

সাদিক আবদুল্লাহ বলেন,‘বিএনপির প্রার্থী মজিবুর রহমান সরোয়ার বিভিন্ন সময়ে নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে না বলে মিথ্যাচার করছেন। বিগত দিনে সংসদ সদস্য, মন্ত্রী পদমর্যাদা, বরিশাল সিটি মেয়র ও হুইপ থাকাকালীন সরোয়ারসহ বিএনপি সমর্থিত মেয়রদের কোনও উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন বরিশালবাসীর চোখে না পড়ায় বর্তমানে তারা অনেকটা জনবিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এ কারণেই জনবিচ্ছিন্ন এ নেতা নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে না বলে জনগণকে ভুল ও মিথ্যাচার করে বিভ্রান্তিত জড়াচ্ছেন। কিন্তু আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে বিশ্বাস করেন। প্রধানমন্ত্রী জনগণের রায়কেই সর্বোচ্চ বলে বিবেচনা করেন। বরিশালের মানুষের ভালোবাসায় তাদের পাশে থেকে নগরবাসীকে সর্বোচ্চ সেবা দেওয়াই আমার প্রধান কাজ। তাই বরিশাল সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হওয়ার লক্ষ্যে নির্বাচন কমিশনের কাছে আমার বাসার কাছের নিজ ওয়ার্ডের দুইটি ভোটকেন্দ্র ইভিএমের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছি।’

এছাড়া নৌকা প্রতীকের সমর্থনে দুপুরে বরিশাল আইনজীবী সমিতির সম্মিলিত আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ ও নগরীর ১৭নম্বর ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ নেতারা সাবেক পৌর প্যানেল মেয়র নিজামুল ইসলাম নিজামের নেতৃত্বে ভোট প্রার্থনা করে প্রচারণা চালান।

অন্যদিকে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সদস্যরা নগরীতে গণসংযোগ করে সাদিক আবদুল্লাহ্র জন্য ভোট প্রার্থনা করেন ও বরিশালের উন্নয়নের পথ বাধাগ্রস্থ না করার আহ্বান জানান।