ধর্মীয় অনুভূতি কাঁপিয়ে দিলেন খান সন্স

0
46

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঈদে মিলাদুন্নবী (সঃ) উপলক্ষে দেশের অফিস-আদালতসহ সরকারী-বেসরকারী প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা হলেও বরিশালের খান সন্স গ্রুপ কর্তৃপক্ষ চালু করছেন নতুন আইন।

ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানলেও ব্যবসায় কোন বাঁধা ঢুকতে দেয়া হবে না।

এমন নয়া নিয়ম চালু করে গত শনিবার দিন। ঈদে মিলাদুন্নবী (সঃ) দিনেও কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ শ্রমিকদের জিম্মি করে অনান্য দিনের ন্যায় ওই প্রতিষ্ঠানে কার্যক্রম চলমান ছিল। নাম গোপন রাখার শর্তে খান সন্স গ্রুপের একাধিক শ্রমিক জানিয়েছে, প্রতিষ্ঠানটি শ্রম আইন অনুযায়ী শ্রমিকদের কোন সুযোগ-সুবিধা দেয় না।

কয়েকজন শ্রমিক ঈদে মিলাদুন্নবী (সঃ) উপলক্ষে প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রম বন্ধ রাখার আলোচনা মুখে আনার পূর্ব মুহূর্তে কর্তৃপক্ষ ঘোষণা দিয়েছে যে আসবে না তার চাকুরী করার প্রয়োজন নেই।

তাই চাকুরী হারানো ভয়ে শ্রমিকরা ওই দিনে কর্মে যোগদান দিতে বাধ্য হয়েছে। কর্তৃপক্ষ ঈদে মিলাদুন্নবী (সঃ) দিনেও খোলা রেখেছিল এ প্রতিষ্ঠানের প্রধান কার্যালয়সহ শাখা অফিস।

এনিয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মাঝে চরমক্ষোভ বিরাজ করলেও চাকুরী হারানোর ভয়ে প্রকাশ্যে কেউ মুখ খুলেনি। নিয়মানুযায়ী জন প্রতি শ্রমিকদের প্রতিদিন ৮ ঘন্টা কাজ করার কথা থাকলেও খান সন্স গ্রুপ কর্তৃপক্ষ তা মানছে না।

নির্দিষ্ট সময়ের চেয়ে অতিরিক্ত কাজ করানো হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।

ওই প্রতিষ্ঠানের (খান সন্স গ্রুপ) এস আর বিভাগের জিএম মো.সাহেদুর রহমান এর কাছে উপরোক্ত বিষয় তুলে ধরা মাত্রই উত্তেজিত হয়ে বলেন, কোন দিন বন্ধ রাখবো কি রাখবো না তা তাদের ব্যক্তিগত সিন্ধান্ত। পরে শান্ত হয়ে দেখা করার অনুরোধ জানান।