নওগাঁর মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে আতংকের নাম রফিকুল

0
341

নওগাঁ প্রতিনিধি।।

  মাদকের ভয়াবহ কবল হতে দেশ ও যুবসমাজদের রক্ষা করতে কঠোর জায়গায় আছেন নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলা অফিসার ইনচার্জ মোঃ রফিকুল ইসলাম।রফিকুল ইসলাম নিয়ামতপুর উপজেলায় যোগদানের দুই মাসের ব্যবধানে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বিশেষ অভিযান চালিয়ে প্রায় ১২ লক্ষাধিক টাকার মাদক দ্রব্য জব্দ করেছেন নিয়ামতপুর থানা পুলিশ।

প্রতিনিয়ত তিনি মাদক দ্রব্য আটক করেছেন।গত ২২-০৮-২০১৬ ইং তারিখে যোগদান করেন নিয়ামতপুর থানার নতুন অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিকুল ইসলাম।তিনি   আসার পর মাদকের ছোবল থেকে রক্ষা পেয়েছে উপজেলার প্রায় সকল মাদক সেবী মানুষ।উপজেলার সকল মাদক ব্যবসায়ীদের মধ্যে আতংকের কাজ করছে কিছু মাদক ব্যাবসায়ী ওসি রফিকুলের ভয়ে মাদক ব্যবসা ছেড়ে দিয়ে তারা সৎপথে চলতে শুরু করেছে।কেউ ভ্যান রিস্কা চালাচ্ছেন আবার কেউ কেউ শ্রমিকের কাজে নিয়োজিত রয়েছেন।উপজেলার সাধারন জনগণ জানান নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুর উপজেলা মাদকের জন্য বিক্ষাত ছিল এবং মাদক সেবীদের কারনে উপজেলার শান্তি উঠে গিয়েছিল ।

মাদক সেবীদের মাদকের টাকা যোগাতে প্রায় প্রতিদিন চুরি,ডাকাতি,ছিনতাই লেগেই থাকতো।থানায় জিডি বা অভিযোগ দিতে গিয়ে এখন আর আগের মতো হয়রানির শিকার হতে হয়না।তিনি নিজেই সকলের অভিযোগ শুনে আইনানুগ ব্যবস্থা নেন এবং কোন দুর্ঘটার খবর পেলে তিনি তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে ছুটে যান ।নতুন ওসি’র ব্যাপক তৎপরতায় উপজেলায় আইনশৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক পর্যায়ে চলে এসেছে।কিন্তু ওসি রফিকুল ইসলাম এর মহৎ উদ্দ্যেগে মাদকের ময়দানে শক্ত অবস্থানে থাকার কারনে উপজেলার শতাধীক মদ,গাজা,হিরোইন,ফেন্সিডিল,ইয়াবা ব্যবসায়ীদের ধরে চালান করেন ও সৎ পথে আসার পরামর্শ দিয়ে আলোর পথে নিয়ে আসার কারনে উপজেলায় মাদক ব্যবসায়ীর উৎপাত কমে যায় ।

এতে করে উপজেলায় ওসি রফিকুলের কারনে শান্তি ফিরে এসেছে।ওসি রফিকুলের মত সৎ অফিসার যদি দেশের প্রতিটি উপজেলায় থাকতো তাহলে দেশ অনেক উন্নতি করত।এই বিষয়ে ওসি রফিকুল ইসলামের সাথে কথা হলে তিনি জানান।জনগণের সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ন্যায় ও নিষ্ঠার সঙ্গে আজীবন কাজ করার অঙ্গিকার ব্যক্ত করে তিনি বলেন, এ থানাকে সব ধরণের অপরাধমুক্ত একটি আদর্শ থানা হিসেবে গড়ে তোলার প্রত্যয় নিয়ে কাজ শুরু করেছি।উপজেলাকে মাদক মুক্ত করার জন্য আমার অভিযান চলতে থাকবে এবং মাদকের বিষয়ে কোন ছাড় নেই তার সাথে বাল্য বিবাহ সহ সকল অপরাধের কঠোর শাস্তি দিয়ে অপরাধ নির্মূল করা হবে।