পটুয়াখালীতে কলেজ ছাত্রীর উপর সন্ত্রাসী হামলা

0
494

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জমি বিরোধের জের ধরে কলাপাড়ায় কলেজ ছাত্রী জাকিয়া সুলতানা কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় ঘটনার দিন রাতে আহত জাকিয়ার স্বামী উজ্জল খান নামধারী ৩জন ও অজ্ঞাত ৪/৫ জনকে অভিযুক্ত করে কলাপাড়া থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় অভিযুক্তরা হলো ঃ একই এলাকার মৃত মজিবর রহমান খানের ছেলে সিরাজুল ইসলাম খান ও মেয়ে নাসরিন আক্তার, স্ত্রী লুৎফা বেগমসহ অজ্ঞাত আরো ৪/৫ জন।

মামলার বিবরন সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে কলাপাড়ার মধ্য চালিতাবুনিয়া গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে উজ্জল খানের সাথে তার চাচা ভূমিদস্যু সিরাজুল ইসলাম খানের জমি নিয়ে চলে আসছে। ওই বিরোধের জের ধরে সিরাজুল ইসলামসহ তার সহযোগীরা উজ্জল ও তার পরিবারের ক্ষতি করার পায়তারায় লিপ্ত রয়েছে। ঘটনার দিন সিরাজুলের সহযোগীরা তাদের পালিত হাঁস-মুরগি দিয়ে উজ্জলদের ফসল নষ্ট করায়। এ নিয়ে উজ্জলের স্ত্রী জাকিয়া প্রতিবাদ করলে একই দিন বিকেলে সিরাজুলসহ অন্যান্যরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাকে কুপিয়ে জখম করে। এ সময় সিরাজুল জাকিয়ার শ্লীলতাহানী ঘটায়। স্থানীয়রা আহত জাকিয়াকে উদ্ধার করে তাৎক্ষনিক কলাপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

পরে আহতের অবস্থার অবনতি হলে তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এছাড়া উজ্জলের ঘরে স্বর্ণালংকার ও টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়। আহতের স্বজনরা আরো জানান, সিরাজুল এলাকায় ভূমিদস্যু, দুঃশ্চরিত্র ও লম্পট হিসেবে পরিচিত। পুরো গ্রামে তার বিরুদ্ধে নারী কেলেংকারীর অভিযোগ ও একাধিক ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। হামলার পর সন্ত্রাসীরা উজ্জলের পরিবারকে হত্যা করে লাশ গুম করার হুমকি দিয়ে আসছে।