প্রকাশ্যে ঘুরছে কাজীর হাটে ৮ বছরের ওয়ারেন্ট ভুক্ত হত্যা মামলার আসামী বাবুল

0
131
mde

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কাজীর হাটে ওয়ারেন্ট ভুক্ত হত্যা মামলার আসামী প্রকাশের ঘুরছে বাবুল সিকদার। এদিকে মামলার বাদী নিহতের ভাই পালিয়ে দিন কাটাচ্ছেন। তিনি প্রায় ৮ বছর প্রযন্ত প্রকাশ্যে ঘুরছে।

পুলিশ যেনেও না জানার-বান করে সংবাদ কমীর কাছে ওয়ারেন্টের কপি চাচ্ছেন। আসামী বলছেন আমি অপরাধী তবে ঢাকায় পালিয়ে কাপুড়ের ব্যবসা করি। মাঝে মধ্যে এমপি সাহেবের মিটিং উপস্থিত হই। সর্ব শেষ চলতি বছরের ১৯ তারিখ এমপির সাথে একটি মিটিংএ অংশ নেন বলে দাবী করেন বাবুল সিকদার।

এবিষয় এমপি পংকজ দেবনাথের মুঠোফোনে ফোন করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করে নাই। মামলার নথি সূত্রে দেখা যায় ২০০১ সালের মার্চ মাসের ১৯ তারিখ বরিশাল জেলার মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলার কাজীর হাট থানাধীন ৬ নং বিদ্যানন্দনপুর ইউনিয়ন এর পশ্চিম রতন পুরে আব্দুর রহমানের ছেলে মোতাহার হাওলাদারকে হত্যা করা হয়। উক্ত ঘটনায় তৎকালীন মেহেন্দিগঞ্জ থানা পুলিশ জয়নাল সিকদারের ছেলে বাবুল সিকদারকে ১ নং আসামী করে চাজসীর্ট দাখিল করেন বরিশাল বিজ্ঞ আদালতে। জাহার মামলা সেসন নং-২৪৫/০২।

বর্তমানে বরিশাল ২য় অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতে মামলা বিচারাধীন আছে। বাবুল সিকদার পলাতক থাকায় বিচারক পরবর্তীতে ২০১১ সালের ডিসেম্বর মাসের ৪তারিখ গ্রেফতারী ওয়ারেন্ট ইস্যূ করেন। উক্ত সময় থেকে অর্ধবর্তী আসামী বাবুল পলাতক আছেন বলে জানাগেছে। যদিও তিনি এলাকায় স্থানীয় প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তিদের ছত্রছায়ায় ঘুরে বেড়াচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মামলার বাদীর অভিযোগ বাবুল সিকদার স্থানীয় এমপিকে ম্যানেজ করে প্রকাশ্যে ঘুরে বেরাচ্ছেন ও মামলা তুলে নেয়ার জন্য নানান রকমের হুমকি দিয়ে আসছেন। বাধ্য হয়ে জীবন বাচাতে পালিয়ে দিন কাটাচ্ছেন।

পুলিশ দেখে না দেখার অভিনয় করছেন। এমনকি পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় চাদাবাজী করে আসছেন। তিনি আরো বলেন, ন্যায় বিচারের জন্য ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামী বাবুল সিকদারকে দ্রুত গ্রেফতারের জন্য প্রশাসনের উর্দ্বতন কর্তৃপক্ষের সহয়োগিতা চাচ্ছেন।

কাজীর হাট থানার ওসি তদন্ত আব্দুল খালেক সময়ের বার্তাকে জানান, অনেক আসামী আছেন যারা দেশ ছেড়ে পালিয়ে আছেন। তবে এলাকায় ঘুরছে এমন তথ্য তাদের কাছে নাই। আর ওয়ারেন্ট এর কপিও তাদের কাছে নাই।