বরিশাল আদালতে ঘুষ দাবী করা রেখার পর সেরেস্তাদার কাদেরও বরখাস্ত, আদালতকে জনগণের ধন্যবাদ জ্ঞাপন..দেখুন পূণার্ঙ্গ ভিডিও

0
265

মু: মনিরুজ্জামান মুনির,সিনিয়র ষ্টাফ রিপোর্টার:- বরিশাল থেকে প্রকাশিত দৈনিক আজকের সময়ের বার্তা পত্রিকার অফিসিয়াল পেইজ ও পত্রিকায় বরিশাল আদালতের কয়েকজন ষ্টাফের ঘুষ দাবীর বিষয়ে লীড নিউজ ও ভিডিও প্রকাশ হওয়ায় তা দেশব্যাপী ভাইরাল হলে আদালতের ঘুষ দাবী করা রেখার পর সেরেস্তাদার আব্দুল কাদেরকেও বহিষ্কার করা হয়েছে।

২১ নভেম্বর বরিশাল জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সেরেস্তাদার আ: কাদেরকে সাময়িক বহিষ্কার করে শোকজ করা হয়েছে। এর আগে গত রোববার বরিশাল দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের সহকারী সেরেস্তাদার রেখা রানী দাসকেও ঘুষ দাবী ও ঘুষ গ্রহণের অভিযোগে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। ঘুষ দাবী করা ষ্টাফদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের পদক্ষেপ হিসেবে সাময়িক বহিষ্কার করায় আপামর জনগণ বরিশাল আদালতকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছে।https://www.facebook.com/somoyerbartabd/videos/559926188192753/?t=18

জানা গেছে, দৈনিক সময়ের বার্তা পত্রিকার সিনিয়র ষ্টাফ রিপোর্টার মু: মনিরুজ্জামান মুনির গত ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে বরিশাল জেলা ও দায়রা জজ আদালতের সেরেস্তাদার আ: কাদেরের নিকট জি/আর ১৮২/১৮ নম্বর মোকর্দ্দমায় সেশন নম্বর জানতে গেলে তিনি নম্বর ফালাতে এক হাজার টাকা ঘুষ দাবী করেন।এবং একই সময় একজন আইনজীবীর নিকট থেকে ঘুষের টাকা কম হওয়ায় তর্ক করেন।

যা ভিডিওতে ধারণ করা হয়। অপরদিকে গত ১১ নভেম্বর বরিশাল দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল ও বিশেষ জজ আদালতে সাচিংয়ের আবেদন করলে ওই আদালতের সহকারি সেরেস্তাদার রেখা রানী দাস সাংবাদিক মু: মনিরুজ্জামান মুনিরের নিকট এক হাজার টাকা ঘুষ দাবী ও একই সময়ে একজন আইনজীবীর সহকারীর নিকট থেকে ৪ শত টাকা ঘুষ গ্রহণ করেন।

যা সাংবাদিক মুনির ভিডিওতে ধারণ করেন এবং গত ১৪ নভেম্বর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোষ্ট দিলে ভাইরাল হয়ে যায়। পরবর্তীতে বিষয়টি ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় ফলাও করে প্রচার হয়। এতে গত রোববার রেখা রানীকে সাময়িক বরখাস্ত করে কারন দর্শাতে বলা হয়। রেখা রানীর ওই বরখাস্তের পর আব্দুল কাদেরের ঘুষ দাবী ও ঘুষ গ্রহণের ভিডিও প্রকাশ হলে তাও ভাইরাল হয় এবং সময়ের বার্তা পত্রিকায় লীড নিউজ হয়। এরপর আদালত সেরেস্তাদার আ: কাদেরকেও সাময়িক বরখাস্ত করেছে।

আদালত দু’জন ষ্টাফের ঘুষ গ্রহণ ও ঘুষ দাবীর ঘটনায় তাৎক্ষণিক বহিষ্কার করায় জনগণ আদালতকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছে। এদিকে ঘুষ দাবী করা ষ্টাফরা সাংবাদিক মুনিরকে দেখিয়ে দেওয়ার ও মামলা দিয়ে হয়রানি করবে বলে বিভিন্ন লোক মারফত হুমকি অব্যাহত রেখেছে।