বিদ্যালয়ের ৩শ বই বিক্রি করল প্রধান শিক্ষক, ধরলো এলাকাবাসী!

0
205

ঝালকাঠি প্রতিনিধি।।

ঝালকাঠির রাজাপুরের ৮৫ নং উত্তর কাঠিপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এস্কেন্দার আলী ফরাজির বিরুদ্ধে ওই বিদ্যালয়ের বিভিন্ন শ্রেণির প্রায় ৩শ বই বিক্রি করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার দুপুরে বইগুলো বিক্রির পর তা টমটমে করে ক্রেতা নিয়ে যাওয়ার সময় এলাকাবাসী বইগুলো জব্দ করে ইউএনও আফরোজা বেগম পারুলকে অবহিত করলে তিনি পুলিশ ও শিক্ষা কর্মকর্তাদের ঘটনাস্থলে পাঠালে বই জব্দ করে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়ার প্রস্ততি নেয়া হয়। এ ঘটনায় রাজাপুর থানায় একটি জিডি হয়েছে, বলেন এসআই আব্দুস সালাম।

সরেজমিনে জানা গেছে, উত্তর কাঠিপাড়া স্কুলের রেজুলেশন বহি, হাজিরা খাতাসহ ২০১৭, ১৬, ১৫ সালের বিভিন্ন শ্রেণির নতুন ও পুরাতন প্রায় ৩শ’ বই ৭টাকা করে ৬২ কেজি বই ভ্রাম্যমান ক্রেতা কুষ্টিয়ার কুমারখালির মির্জাপুর গ্রামের মোঃ আলীর কাছে বিক্রি করেন প্রধান শিক্ষক এস্কেন্দার আলী ফরাজি, জানান ক্রেতা মোঃ আলী।

তবে ৬২ কেজিরও বেশি হবে বলে এলাকাবাসীর দাবি। ওই স্কুলের একাধিক শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করে, তাদের বই পুরাতন হলে বা ছিড়ে গেলে শিক্ষকদের কাছে নতুন বই চাইলেও দিতেন না। ওই বিক্রির পর তা ধরা পড়ার খবরে শিক্ষার্থীরা তা দেখে হতবাক হয়ে পড়েন। অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক এস্কেন্দার আলী ফরাজি জানান, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা স্কুল পরিদর্শনে আসবেন বলে, স্কুলের কক্ষগুলো পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন কারার লক্ষে ৩৫ কেজি পুরান বইসহ পুরাতন কার্টুন ও কাগজপত্র বিক্রি করেছি।

সরকারি বই বিক্রির নিয়ম আছে কিনা এমন প্রশ্ন করলে নিউজ না করার জন সাংবাদিকদের কাছে অনুরোধ করেন তিনি। এ বিষয়ে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন জানান, বই জব্দ করা হয়েছে, তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।