মিথ্যা বলে গলা খারাপ হয় ফখরুলের: প্রধানমন্ত্রী

0
122

সময়ের বার্তা ।।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের নিজ জেলা ঠাকুরগাঁওয়ের জনসভায় বিএনপি মহাসচিবকে এক হাত নিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তার অভিযোগ, ফখরুল দিন রাত কেবল মিথ্যা বলেন এবং এ কারণে তার গলার চিকিৎসাও করাতে হয়।

প্রায় দেড় যুগ পর প্রধানমন্ত্রী বৃহস্পতিবার ঠাকুরগাঁও সফরে যান। সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের বড় মাঠে যোগ দেন জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায়। এ সময় তিনি বিএনপি মহাসচিবের কঠোর সমালোচনা করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘মির্জা ফখরুল ইসলাম দিন রাত কথা বলতে বলতে গলা ফুলিয়ে… মিথ্যা কথা বলতে বলতে গলা খারাপ হয়ে যায়, বারবার গলায় চিকিৎসা করাতে হয়।’

‘মিথ্যা কথা বলার একটা সীমা আছে। সারা দিন মিথ্যা কথা বললে তো, এত মিথ্যা কথা বললে আল্লাহও নারাজ হয়।’প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের আগে ঠাকুরগাঁওয়ের বেশ কয়েকজন নেতা প্রশ্ন রাখেন রাখেন মির্জা ফখরুল তার নিজ জেলার জন্য কী করেছেন। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরই জেলায় সব উন্নয়ন হয়েছে বলেও জানান তারা। আর বিএনপি মহাসচিব এসব উন্নয়ন স্বীকার না করায় তার সমালোচনা করেন তারা।

পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বিমান প্রতিমন্ত্রী থাকাকালে ঠাকুরগাঁও লাগোয়া সৈয়দপুর বিমানবন্দর বন্ধ করে দেয়ার কথা তুলে ধরেন।শেখ হাসিনা বলেন, ‘সে (ফখরুল) ছিল বিমান প্রতিমন্ত্রী। সে যে বিমানমন্ত্রী ছিল, বিমানের কী উন্নয়নটা করেছিল বলেন? বিমানের প্লেন ঝরঝর, চলে না, বিমান নাই। টাকা পয়সা সব লুটপাট। রাডার স্টেশন নষ্ট। সব কিছু ধ্বংস করে রেখে গেছে।’

‘সৈয়দপুর এয়ারপোর্ট, এখান থেকে মাত্র কয়েক মাইল দূরে। এই এয়ারপোর্ট বন্ধ করে দিয়েছিল বিএনপির আমলে। বিমানমন্ত্রী আপনাদের এখানকার, আর সৈয়দপুর এয়ারপোর্টটা বন্ধ করে দেয়!’

আমরা ক্ষমতায় এসেছি, এই এয়ারপোর্ট চালু করে দিয়েছি, এখান দিয়ে আজকে মানুষ যাতায়াত করতে পারছে।’‘রাজশাহী এয়ারপোর্ট বন্ধ করে দিয়েছিল, আমরা সেটা চালু করে দিয়েছি। বরিশাল এয়ারপোর্ট বন্ধ করে দিয়েছিল, আমরা সেটা চালু করেছি।’আওয়ামী লীগ সরকারে আসার পর বিমান ঘুরে দাঁড়িয়েছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। বলেন, ‘আমরা আন্তর্জাতিক মানের এ পর্যন্ত আট খানা বিমান আমরা ক্রয় করেছি, আরও দুই খানা বিমান নতুন আসবে।’

দীর্ঘ বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী বিএনপি সরকারের আমলের সঙ্গে তার সরকারের তুলনা করে আগামী নির্বাচনে আবার নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার আহ্বান জানান। খালেদা জিয়ার পরিবার ব্যাংক থেকে ৯৮০ কোটি ২০ লক্ষ টাকা নিয়ে মেরে দিয়েছে বলেও জানান তিনি।