‘মেনন, এরশাদ পেলে বিএনপি পাবে না কেন?’

0
139

সময়ের বার্তা ।।

জাতীয় পার্টি ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের অনুমতি পেলে বিএনপি পাবে না কেন, সে প্রশ্ন তুলেছেন রুহুল কবির রিজভী।

রবিবার বিকালে দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য এ কথা বলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব।

দুর্নীতির মামলায় পাঁচ বছরের কারাদণ্ড পাওয়া বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সোমবার সোহরাওয়ারার্দী উদ্যানে সমাবেশ ডেকেছে বিএনপি। এর আগে ২২ ফেব্রুয়ারিও তারা সমাবেশ করতে চেয়েছিল তারা। কিন্তু অনুমতি না দেয়ায় সে সমাবেশ আর হয়নি। এর আগে ৫ জানুয়ারি দশম সংসদ নির্বাচনের চার বছর পূর্তিতেও বিএনপি সমাবেশ করতে পারেনি পুলিশ দলটিতে অনুমতি না দেয়ায়।

গত ৭ মার্চ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ করেছে আওয়ামী লীগ। এর আগে ৩ মার্চ সেখানে সমাবেশ করে আওয়ামী লীগের শরিক বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি। আগামী ২৪ মার্চ সেখানে সমাবেশের অনুমতি পেয়েছে জাতীয় পার্টি।

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এই জনসভার কর্মসূচি ঠিক করে গত ২ মার্চ ঢাকা মহানগর পুলিশ ও গণপূর্ত অধিদপ্তরের কাছে অনুমতি চেয়ে চিঠি দেয়  বিএনপি। তবে বিএনপির ঘোষিত সমাবেশের আগের দিন বিকাল পর্যন্ত সমাবেশের অনুমতি না মেলায় দলটি কোনো প্রস্তুতি নিতে পারছে না।

রিজভী বলেন, ‘রাশেদ খান মেননের কয়টা লোক আছে? এরশাদের কয়টা লোক আছে? তারপরও তারা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভার অনুমতি পায়? তাহলে বিএনপি পাবে না কেন?’।

‘সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের মালিকানা কি আওয়ামী মহাজোটের’- এই প্রশ্ন রেখে বিএনপি নেতা বলেন, ‘দেশকে তারা পৈত্রিক সম্পত্তি মনে করে বলেই তারা এই ধরনের আচরণ করছে।’

বিএনপিকে জনসভা করতে না দেওয়ার মধ্য দিয়ে  সরকারের অগণতান্ত্রিক আচরণের প্রকাশ ঘটছে এমন মন্তব্য করে রিজভী বলেন, ‘তারা গণতন্ত্রকে গলা টিপে ধরছেন, এই কারণেই যে যতই জনগণ জনসভায় আসবে, ততই তাদের মধ্যে ভীতির সৃষ্টি হচ্ছে।’

‘সরকারকে বলব, এখনও সময়্ আছে, আপনাদের মনে শুভ বুদ্ধির উদয় হোক। আমাদেরকে অনুমতিটা দিন, আমরা জনসভাটা করি।’

এর আগেও বিভিন্ন সময় বিএনপিকে শেষ মুহূর্তে অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। এবার সেরকম ঘটলেও জনসভা আয়োজনের প্রস্তুতি নিজেদের রয়েছে বলে রিজভী জানান।

‘অতীতেও দেখেছি রাত ৮টা/৯টায় অনুমতি দিয়েছে। আমরা সেটা দেখব। আজকে রাতের মধ্যে যখনই অনুমতি দেওয়া হোক, আমরা আগামীকাল সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভা সফল করতে সক্ষম হব।’

এরআগে সকালে আবুল খায়ের ভুঁইয়ার নেতৃত্বে বিএনপির চার সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে দেখা করেন। তবে ইতিবাচক কোনো জবাব পাননি।

রিজভী বলেন, ‘পুলিশ কেন অনুমতি দেবে না? কালকে তো খুলনায় জনসভা হয়েছে। ওখানে কি কোনো গোলমাল হয়েছে, কোনো সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হয়েছে? তাহলে দেবে না কেন?’

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য আবুল খায়ের ভুঁইয়া, আবদুস সালাম, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, আবদুল আউয়াল খান, আবেদ রাজা, আমিনুল ইসলাম প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।