ময়মনসিংহে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫

0
20
সময়ের বার্তা ডেস্ক।।
ময়মনসিংহের ফুলপুর ও ভালুকায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ৫ জন নিহত ও ১৪ জন আহত হয়েছে। ফুলপুরে নিহতরা হলেন, ময়মনসিংহ সদরের দীঘারকান্দা গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে হৃদয় (১৮), একই গ্রামের আবদুল মজিদের ছেলে শহীদুল ইসলাম (৪২) ও কেওয়াটখালী এলাকার শমশের আলীর ছেলে ইদ্রিস আলী (৪৫), ভালুকায় নিহতরা হলেন মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলার কলমা গ্রামের আবদুর বারেকের পুত্র রিপন ও ভালুকা পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডে মুচারভিটা আসর আলীর পুত্র কামরুল।
পুলিশ জানায়, গত ভোররাতে (শুক্রবার)  ময়মনসিংহ-শেরপুর সড়কের ফুলপুর উপজেলার ভাইটকান্দি সখল্লা মোড়ে শেরপুরগামী একটি ট্রাকের সাথে বিপরীত মুখী একটি মুরগীবাহী পিকআপের মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে দুইজন ও হাসপাতালে নেয়ার পথে আরো একজন নিহত হয়। আহত পিকআপ চালক বোরহান ও মুরগী ব্যবসায়ীকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় পিকআপের প্রায় তিন শতাধিক মুরগী মারা যায়।
ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহম্ম্দ মোল্লা জানান, পুলিশ লাশ তিনটি উদ্ধার করে ময়মনসিংহ তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল হাসপাতালে পাঠিয়েছে। পুলিশ ট্রাক ও পিকআপ পুলিশ জব্দ করেছে। চালক পালিয়ে গেছে।
অপরদিকে শনিবার সকালে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের ভালুকা উপজেলার  কাঠালী নায়েবের বাজার নামকস্থানে ক্রাউন এ্যাপারেন্স লিঃ এর একটি শ্রমিকবাহী বাস উল্টে ঘটনাস্থলেই একজন ও হাসপাতালে নেয়ার পর আরও এক শ্রমিক নিহত হয় এতে কমপক্ষে ১২ শ্রমিক আহত হন।
পুলিশ জানায়, শনিবার সকালে ভালুকা উপজেলার  কাঠালী নায়েবের বাজার নামকস্থানে জামিরদিয়া ক্রাউন এ্যাপারেন্স লিঃ ভাড়া করা বাস দিয়ে শ্রমিকরা ভালুকা থেকে মিলে যাওয়ার সময় চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে বাসটি রাস্তার উপর উল্টে যায়, এতে ঘটনাস্থলেই মিল শ্রমিক রিপন ও হাসপাতালে নেয়ার পর আরেক শ্রমিক কামরুল ইসলাম নিহত হন।
আহতদের উদ্ধার করে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার পর ৫ জনকে মুমূর্ষ অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। দর্ঘটনায় দুই শ্রমিক নিহত হওয়ার সংবাদ মিলের ভেতর ছড়িয়ে পড়লে ক্ষুব্ধ শ্রমিকরা জামিরদিয়া এলাকায় মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এ সময় হাইওয়ে পুলিশ ও থানা পুলিশের সহযোগিতায় এ ঘন্টা পর শ্রমিকরা অবরোধ তোলে নেয়।
ভালুকা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামুনুর রশিদ দুর্ঘটনার খবরে শ্রমিকরা আধাঘন্টা রাস্তা অবরোধ করে রাখে। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।