যে ৮টি খাবার পাকা চুল রোধ করবে

0
30

লাইফ ও সাইন্স।।

মানসিক চাপ, বাজে খাদ্যাভাস, প্রকৃতির বৈরী রূপ, অযত্ন এবং অবহেলার কারণে অনেকের মধ্যে একটি সমস্যা দেখা দিচ্ছে আর তা হলো অল্প বয়সেই চুল পেকে যাওয়া। সাধারণত বয়সের সঙ্গে সঙ্গে চুল পাকবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু চুল শুধু বয়সের জন্যই পাকে না। এর অনেক কারণ রয়েছে। বার্ধক্য এবং জিনগত কারণ ছাড়াও অতিরিক্ত স্ট্রেসের কারণে তাড়াতাড়ি চুল পেকে যায়। তাছাড়া শরীরে পুষ্টির অভাব হলেও চুল পেকে যায়। চুলের সঠিক যত্নের অভাবেও এটি ঘটতে পারে।

তাই নিয়মিত স্ট্রেস-রিলিফ এক্সারসাইজ করলে এবং প্রয়োজনমতো ভিটামিন, ওমেগা-৩ ফ্যাটি অ্যাসিড-সমৃদ্ধ খাবার খেলে অল্প বয়সে চুল পেকে যাওয়ার হাত থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

যে খাবারগুলো পাকা চুল রোধ করে পাশাপাশি স্ক্যাল্প ভাল রাখে এবং নতুন চুল গজাতেও সাহায্য করে সেরকম ৮টি খাবার হল-

সবুজ শাকসব্জি

সবুজ শাকসব্জিতে থাকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। একই সাথে আছে ভিটামিন বি যা মাথার ত্বকের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। চুল পাকা সমস্যায় এটি প্রতিরোধ করে।

সামুদ্রিক মাছ

মাছে অবশ্যই উচ্চমাত্রার প্রোটিন আছে যা চুলের জন্য খুবই জরুরী। এছাড়া সামুদ্রিক মাছগুলোতে আছে ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড ও সেলনিয়াম।

জাম ফল

তাজা জাম জাতীয় ফল যেমন-স্ট্রবেরী যা ভিটামিন-সি তে ভরপুর। এগুলো চুলকে সুস্থ্য রাখে এবং পাকা চুল থেকে রোধ করে।

চকলেট

চকলেটে প্রচুর পরিমাণে কপার আছে যা চুলের মেলানিন উৎপন্ন করতে সাহায্য করে। এটি চুলের কালো রং বজায় রাখে।

ডাল

ডালে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি-১২ এবং বি-৯। তাই খাদ্য তালিকায় প্রতিদিন ডাল রাখতে হবে।

বাদাম

বাদামে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই যা পাকা চুল রোধ করতে সাহায্য করে।

ডিম

ডিম খেতে অনেকেই পছন্দ করেন না কিন্তু চুলের জন্য এটি অত্যন্ত জরুরী। ডিমের সাদা অংশ নয় ডিমের কুসুম পাকা চুল রোধ করতে বেশী সাহায্য করে।

হলুদ ক্যাপসিকাম

একটি কমলার চেয়ে সাড়ে পাঁচ গুণ বেশি ভিটামিন সি আছে হলুদ ক্যাপসিকামে। চুলের গোড়ায় পুষ্টি যোগাতে এবং পাকা চুল রোধ করতে সাহায্য করে।