রোহিঙ্গাদের ফেরাতে মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত: প্রধানমন্ত্রী

0
32

সময়ের বার্তা ডেস্ক।।

জাতিগত সহিংসতার জেরে নির্যাতনের মুখে মিয়ানমারের রাখাইন থেকে যেসব রোহিঙ্গা বাংলাদেশে এসেছেন মানবিক দিক বিবেচনা করে তাদেরকে আশ্রয় দেয়া হয়েছে। আর এসব রোহিঙ্গাকে ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকারের ওপর চাপ অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গণভবনে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সভার সূচনায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা একদিকে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিচ্ছি, অপর দিকে মিয়ানমারকে তাদের ফিরিয়ে নিতে চাপও দিচ্ছি। একটি দেশের নাগরিক কেন শরণার্থী হয়ে আরেক দেশে এসে আশ্রয় নেবে? এটা ওই দেশের জন্য সম্মানজনক নয়। বিষয়টি মিয়ানমারকে উপলব্ধি করতে হবে।’

এ পর্যন্ত যেসব রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নিয়েছে তাদের ফিরিয়ে নেয়া উচিত বলে মনে করেন প্রধানমন্ত্রী। এ সময় তিনি রোহিঙ্গাদের এই করুণ অবস্থার কথা তুলে ধরে এর জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন।

দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের উদ্দেশ্যে দেয়া বক্তব্যে আওয়ামী লীগের সভাপতি বলেন, ‘আমরা চাই দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে সেভাবে এগিয়ে যাক। আমরা চাই মানুষের ভাগ্যের পরিবর্তন। এটাই ছিল জাতির জনকের স্বপ্ন।’

এ সময় তিনি ১৫ আগস্টের নৃশংস ঘটনায় যারা নিহত হয়েছেন তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলায় নিহতদের কথা স্মরণ করেন। আইভী রহমানসহ সেদিন দলের জন্য প্রাণ দেয়া ত্যাগী নেতাদের কথা উল্লেখ করেন।

প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে বিএনপি-জামায়াতের বিগত আন্দোলনে সহিংসতা ও নাশকতার কথা তুলে ধরেন। আন্দোলনের নামে দেশে যেন আর এমন নৃশংস ঘটনা না ঘটে সে দিকে আলোকপাত করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিএনপি এখন ফি অ্যান্ড ফেরার নির্বাচনের কথা বলে। বিএনপির মুখে এটা শুনলে আমার হাসি পায়। তাদেরকে আয়নায় আগে নিজেদের চেহারা দেখা উচিত।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নির্বাচনের নামে প্রহসন শুরুই করেছে বিএনপি। পঁচাত্তরের পর অবৈধভাবে ক্ষমতায় এসে জিয়া ‘হ্যাঁ’ ‘না’ ভোট চালু করেছেন। ‘না’ বাক্স খুঁজেই পাওয়া যায়নি, ছিল শুধু ‘হ্যাঁ’ বাক্স’।

অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলকারী জিয়াউর রহমানের হাতে গড়া দলও নির্বাচনের নামে প্রহসন করেছে বলে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সভাপতি।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘বিএনপি সেদিন নির্বাচনের নামে কী করেছিল সেটা দেশের মানুষ ভুলে যায়নি। এজন্য বিএনপির মুখে এখন ফ্রি অ্যান্ড ফেয়ার নির্বাচনের কথা মানায় না।’

বিএনপি শাসনামলের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘খুন হত্যা লুটপাট যেন তাদের চরিত্র। যত রকম অপকর্ম আছে সব করেছে তারা। তাদের অপকর্মের জের দেশের মানুষকে বইতে হয়েছে।’

এ সময় তিনি দলীয় নেতাকর্মীদের আরও সক্রিয়ভাবে কাজ করার তাগিদ দেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ দেন।

কার্যনির্বাহী সভায় দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ শীর্ষ নেতারা উপস্থিত রয়েছেন।