শ্রীমঙ্গল বরুনা ফয়জুর রহমান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অভিভাবক সমাবেশ

0
16

মো:জহিরুল ইসলাম.মৌলভীবাজার প্রতিনিধি।।

শিক্ষাক্ষেত্রে অভিভাবকের গুরুত্ব অনুধাবন ও অংশগ্রহণ বৃদ্ধি,বিদ্যালয়/শিক্ষা কর্তৃপক্ষের সাথে সম্পর্ক উন্নয়ন, বিদ্যমান সমস্যা চিহ্নিতকরণ এবং সমাধানে সম্বিলিত উদ্যোগ গ্রহণ উপলক্ষ্যে বরুনা ফয়জুর রহমান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের উদ্যোগেও সনাক শ্রীমঙ্গল’র সহযোগিতায় বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে গতকাল৭ সেপ্টেম্বর,বৃহস্পতিবার, সকাল ১০:৩০টায় অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অভিভাবক সমাবেশের অতিথিরা বলেন, অভিভাবকের সচেতনতা, দায়িত্বশীলতা ও সযতœ পরিচর্যা একজন শিশুকে আগামী দিনের যোগ্য ও আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে সহায়তা করে। অভিভাবক ও বিদ্যালয়ের মধ্যে একটি কার্যকর যোগসূত্র তৈরীর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া এবং তাদের শারীরিক, মানসিক বিষয়ে সচেতনতা তৈরির মাধ্যমে বিদ্যালয়ে শিক্ষাবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি এবং বিদ্যালয়ের শিক্ষার মানোন্নয়ন সম্ভব।

সমাবেশে বরুনা ফয়জুর রহমান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এসএমসি’র সহ-সভাপতি জনাব জয়নাল মিয়া’র সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন, সনাকের শিক্ষা বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য বদরুল আলম এর স্বাগত বক্তব্যে সমাবেশের উদ্দেশ্য তুলে ধরেন এবং টিআইবি’র এরিয়া ম্যানেজার জনাব পারভেজ কৈরী এবং সনাক সদস্য দ্বীপেন্দ্র ভট্টাচার্য বিগত সমাবেশের প্রস্তাব ও সিদ্ধান্ত সমূহের বর্তমান অবস্থা, অগ্রগতি, পর্যবেক্ষন ও সুপারিশ উপস্থাপন করেন। বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক সুশান্ত কুমার পাল টিআইবি ও সনাকের সহযোগিতায় বিদ্যালয়ের বর্তমান অবস্থা ও অগ্রগতি চিত্র ব্যক্ত করেন।

সমাবেশে প্রধান শিক্ষকের বক্তব্যে সুশান্ত কুমার পাল বলেন, বিদ্যালয়ের সফলতা ও অভিভাবকদের উপস্থিতি এবং অংশগ্রহনকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেন, সীমাবদ্ধতাকে মাথায় রেখে শিক্ষার মানোন্নয়নে কর্তৃপক্ষের সাথে দরকার স্থানীয় উদ্দ্যোগ।

মুক্ত আলোচনায় উপস্থিত অভিভাবকেরা বিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন উত্থাপন এবং নানাবিধ সমস্যা তুলে ধরেন।এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো স্কুলের বাউন্ডারী ও গর্তভরাট লাইব্রেরি ব্যবস্থা, দূর্বল ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য আলাদা কার্যক্রমের ব্যাবস্থা করা, শিক্ষক স্বল্পতা দূর করা, শিক্ষার্থীদের ঝড়ে পড়া রোধ, সহশিক্ষা কার্যক্রম,শ্রেনি পাঠ দানে উন্নয়ন, উপবৃত্তি বিষয়ক,জেন্ডার সম্পর্কিত ইস্যূ,পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা, বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের উপস্থিতি, স্কুলের একটিভ মাদার্স ফোরামের কার্যক্রম সম্পর্কিত ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

অভিভাবক সমাবেশে অভিবাবক, ছাত্রসহ প্রায় তিন শতাধিক উপস্থিত ছিলেন।