সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে এমপি হবেন তৃতীয় লিঙ্গের প্রতিনিধিরা

0
75

অনলাইন ডেস্ক// জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে এবার এমপি হবেন তৃতীয় লিঙ্গের প্রতিনিধিরা। তাদের যেকোনো একজন এমপি হবেন এবং তাদের অধিকারের কথা বলবেন। তারাও নিজেদের অধিকার আদায়ের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের সেবা করতে চান।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ফরম জমা দেয়ার সময় এমন কথা বলেন নাদিরা খানম (হিজড়া)। দলটির কার্যালয়ে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংরক্ষিত নারী আসনের জন্য মনোনয়ন ফরম বিক্রি ও জমা নেয়া হচ্ছে। আগামীকাল শুক্রবারও ফরম জমা দেয়া ও কেনা যাবে।

এবার কেবল নারীরাই নন, সংরক্ষিত আসনে প্রতিযোগিতার জন্য তৃতীয় লিঙ্গ (হিজড়া)-এর প্রতিনিধিরাও ফরম কিনে জমা দিচ্ছেন।

নাদিরা বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন এবং ফরম কিনতে বলেছেন। আমাদের যে কোনো একজনকে এমপি করা হবে। ৮টি বিভাগ থেকে আমাদের আটজনের ফরম কেনার কথা ছিল। কিন্তু সমঝোতার মাধ্যমে তিনজন ফরম তুলে জমা দিয়েছেন।

নাদিরা রংপুর, আরিফা ইয়াসমিন ময়ূরী ময়মনসিংহ ও ফাল্গুনী চট্টগ্রাম থেকে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে নাদিরা বলেন, ‌‌আমরা ভিক্ষাবৃত্তি করতে চাই না, আমরা এ দেশের অন্য দশজন মানুষের মতো কাজ করে ও চাকরি করে জীবিকা নির্বাহ করতে চাই। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের ভোটাধিকার দিয়েছেন, অধিকারও দেবেন। এ ধরনের সুযোগ দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই।

তিনি বলেন, হিজড়া সম্প্রদায়ের নেতা ময়ূরী কিছুদিন আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাত করে তাদের দাবি-দাওয়া উপস্থাপন করেন।

এর আগে চট্টগ্রাম থেকে আসা তৃতীয় লিঙ্গের প্রতিনিধি ফাল্গুনী লাইনে দাঁড়িয়ে ফরম তুলে জমা দিয়েছেন। জাগো নিউজকে তিনি বলেন, আমরাও এ দেশেরই মানুষ আমাদেরও অধিকার রয়েছে। পুরুষ অথবা নারী যেই হোন না কেন সংসদে যারা যান তারা আমাদের ব্যথা-বেদনা আমাদের আবেদন এগুলো বোঝেন না। এজন্য হিজড়া সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি সংসদে পাঠানো দরকার বলে আমরা মনে করি।

ফাল্গুনী আরো বলেন, আমরা নিজেরাই আমাদের অধিকার আদায়ের জন্য জাতীয় সংসদে যেতে চাচ্ছি।

এক প্রশ্নের জবাবে নাদিরার মতো তিনিও বলেন, কিছুদিন আগে আমাদের সম্প্রদায়ের নেতা ময়ূরী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী আমাদের আশ্বাস দিয়েছেন এবার সংসদে হিজড়াদের প্রতিনিধি থাকবে।

উল্লেখ্য, জাতীয় সংসদের ৩৫০ আসনের মধ্যে ৫০টি আসন নারীদের জন্য সংরক্ষিত। এবার ২৯৯ আসনে সরাসরি ভোট হলেও সংরক্ষিত আসন বণ্টন হয় ভোটে জয়ী দলগুলোর আসন সংখ্যার অনুপাতে।

আনুপাতিক প্রতিনিধিত্ব পদ্ধতিতে এবার আওয়ামী লীগ ৪৩টি, জাতীয় পার্টি ৪টি, বিএনপি ১টি, ওয়ার্কার্স পার্টি ১টি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জোটভুক্ত হয়ে ১টি সংরক্ষিত আসন পেতে পারে।