সাজা বহাল থাকায় আদালতে যুদ্ধাপরাধীর বিষ গ্রহণ

0
147

সময়ের বার্তা ।।

নেদারল্যান্ডসের হেগে বসনিয়া যুদ্ধের অভিযুক্ত যুদ্ধাপরাধীর সাজা বহাল রাখায় আদালতের চূড়ান্ত শুনানির সময়ে বিষ গ্রহণ করেছেন। বসনিয়ান ক্রোট সামরিক কর্মকর্তা স্লোবোদান প্রালজাকের বিষ গ্রহণের ঘটনায় নাটকীয়ভাবে আদালতের শুনানি স্থগিত হয়ে যায়।
জাতিসংঘের ইন্টারন্যাশনাল ক্রিমিনাল ট্রাইব্যুনাল ফর ‍যুগোস্লাভিয়া বসনিয়া যুদ্ধের কমান্ডারের ২০ বছরের সাজা বহাল রাখার ঘোষণা দেয়ার পরে একটি ছোট বোতল অথবার গ্লাস থেকে তরল পান করে চিৎকার করে বলেন, আমি যুদ্ধাপরাধী নই। প্রালজাকের আইনজীবী তখন চিৎকার করে বলেন, আমার মক্কেল বিষ গ্রহণ করেছেন। তখন প্রিজাইডিং বিচারক শুনানি বরখাস্ত করেন এবং চিকিৎসককে ডেকে পাঠান। এটা তাৎক্ষণিকভাবে নিশ্চিত করা যায়নি যে প্রালজাক সত্যিই বিষ গ্রহণ করেছেন কী না, তার শারীরিক অবস্থা সম্পর্কেও জানা যায়নি। প্রালজাকের বিরুদ্ধে অভিযোগ তিনি ১৬ শতকে নির্মিত মোসতার সেতু ধ্বংস করার নির্দেশ দিয়েছেন যাতে মুসলিম বেসামরিক জনগণের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
বুধবার প্রালজাকসহ ছয় বসনিয়ান-ক্রোট সামরিক ও রাজনৈতিক নেতৃত্বের আপিলের রায় প্রদানের কথা। তাদের সবাইকে ১৯৯২-৯৫ বসনিয়া যুদ্ধে মুসলিম হত্যা ও নির্যাতনের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করে ২০১৩ সালে শাস্তি প্রদান করা হয়। বুধবারের শুনানিতে এই ট্রাইব্যুনালের শেষ শুনানি যার পরে আগামী মাসে এটি বন্ধ হয়ে যাবে।
গত সপ্তাহে বসনিয়ার কসাই খ্যাত রাতকো ম্লাদিচকে দোষী সাব্যস্ত করা ট্রাইব্যুনালটি ১৯৯৩ সালে যুগোস্লাভিয়ায় যুদ্ধচলাকালীন গঠন করা হয়। এটি ১৬১ জনকে অভিযুক্ত করে ৯০ জনকে দোষী সাব্যস্ত করে শাস্তি দিয়েছে। গার্ডিয়ান।