সড়কের বিরাট অংশ ভেঙ্গে খালে, সংকীর্ণ রাস্তা দিয়ে চলছে যানবাহন

0
46
হাফিজুল ইসলাম লস্কর।।
সিলেট জেলার ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার ঘিলাছড়া ইউপি’র খাইরুল সড়কের বিরাট অংশ পার্শ্ববর্তী তাগদা ছড়া খালে গেছে বিলীন হয়ে। ফলে সংকীর্ণ হয়ে গেছে রাস্তা। সেই রাস্তা দিয়েই মারাত্মক ঝুকি চলছে যানবাহন। ঘটতে পারে যেকোন সময় মারাত্মক দুর্ঘটনা ও প্রানহানির ঘটনা। তবু তা কর্তৃপক্ষের নজরে পড়ছে না।
সরেজমিনে দেখা যায়, দশ ফুঁট প্রস্থের ওই রাস্তার সাত ফুঁটিই পাশের তাগদা ছড়া খালে বিলীন হয়ে গেছে। অত্র এলাকার বৃষ্টির পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা না থাকার ফলে রাস্তার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হয়ে এ সড়ক ভেঙ্গেছে এবং সেই ভাঙ্গন এখনও অব্যাহত রয়েছে।
ঘিলাছড়া ইউনিয়নের ধারনগাজীপুর, কোরবানপুর, মাধু বাংলা, পশ্চিম বাদেদৈউলি, মির্জাপুর, বাদেদৈউলি, জায়ফরাবাদ গ্রামের একমাত্র এ সড়ক দিয়ে কয়েক হাজার মানুষ প্রতিদিন চলাচলে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। রাস্তা ভাঙার কারণে ব্যস্ততম এই রাস্তা দিয়ে গাড়ী চলাচলও কমে গেছে।
এলাকাবাসী জানান, গত একবছর পূর্বে এলাকার যুবকদের উদ্যোগে গ্রামবাসীর নিজস্ব অর্থায়নে প্রায় দুই লক্ষ টাকা খরচ করে রাস্তায় মাটি ভরাট ও বাঁশ দিয়ে আঁড়া বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এই আঁড়া পঁচে নষ্ট হয়ে গেছে।
ধারণ গাজীপুর গ্রামের, শেখ মোঃ জাকারিয়া, লুৎফুর রহমান শাহ্ ও নুরুল ইসলাম ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, এলাকার এমপি সহ জনপ্রতিনিধিরা কয়েকবার এই ভাঙা রাস্তাটি পরিদর্শন করে গেছেন। অথচ কেউই আমাদের এলাকার একমাত্র চলাচলের সড়কটির স্থায়ী সমাধান করছেন না। আমরা দীর্ঘদিন থেকে সীমাহীন দুর্ভোগের মধ্যে আছি। এ রাস্তায় কয়েকটি দুর্ঘটনাও ঘটেছে।
এ বিষয়ে ঘিলাছড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আশরাফ বাবুল বলেন, গত কয়েক সপ্তাহ আগে ইঞ্জিনিয়ার এসে রাস্তাটি সরেজমিনে দেখে গেছেন। তিনি এখনো কোন রিপোর্ট দেননি। রিপোর্ট পেলেই আমরা রিপোর্ট অনুসারে ব্যবস্থা গ্রহন করব।