হ্যাটট্রিক বিজয়ী প্রধানমন্ত্রী সঙ্গে সাক্ষাত করলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ

0
280

চট্টগ্রাম ব্যুরোঃ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি, মানবতার নেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন চতুর্থবারের মতো সরকার গঠন করে হ্যাটট্রিক বিজয়ী হয়ে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ায় চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক সিটি মেয়র আলহাজ্ব আ.জ.ম.নাছির উদ্দীনের নেতৃত্বে গতকাল শনিবার রাতে গণভবণে সৌজন্য সাক্ষাত করেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

সাক্ষাতকালে মহানগর নেতৃবৃন্দ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান এবং তাঁর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করেন।এইসময় চট্টগ্রাম ৯ আসন থেকে নির্বাচিত বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং শিক্ষা উপ-মন্ত্রী ব্যারিষ্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল এম.পিসহ মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নঈম উদ্দীন চৌধুরী ,আ্যাড.ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল,আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন,জহিরুল আলম দোভাষ,আলহাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, সংগঠনের উপদেষ্ঠা আলহাজ্ব শফর আলী,শেখ মোহাম্মদ ইসহাক,কোষাধ্যক্ষ আবদুচ ছালাম, সংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ,শফিক আদনান,চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী,প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক,আইন সম্পাদক আ্যাড.ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী ,তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর,বন ও পরিবেশ সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী, ত্রাণ ও সমাজকর‌্যাণ সম্পাদক মো. হোসেন, শ্রম সম্পাদক আব্দুল আহাদ, যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক দিদ্রাুল আলম চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক আবু তাহের, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. ফয়সল ইকবাল চৌধুরী, উপ প্রচার সম্পাদক শহিদুল আলম, উপ-দপ্তর সম্পাদক জহর লাল হাজারী, নির্বাহী সদস্য মো.এয়াকুব,আবুল মনছুর,কাজী শফিউল আজিম, গোলাম মোহাম্মদ চৌধুরী, বখতিয়ার উদ্দিন খান, প্রকৌশলী বিজয় কৃষাণ, মো. জাফর আলম চৌধুরী ,সাইফু উদ্দীন খালেদ বাহার, আব্দুল লতিফ টিপু,ড.নিসার উদ্দীন মনজু, রোটারিয়ান ইলিয়াছ ও মোরশেদ আকতার চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

সভায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট নগর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ নিজ নিজ পরিচিতি হন। সাক্ষাৎকালে ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রামের ১৬টি আসনে নৌকার মার্কা প্রাথীকে বিজয়ী করার জন্য চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ নেতৃবন্দকেৃ ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী । তিনি বলেন ,বঙ্গবন্ধু তিলে তিলে এই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে গড়ে তুলেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় বর্তমানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এই পর্যায়ে এসেছে। জাতির পিতার স্বপ্ন ছিল ক্ষুধা ও দ্রারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়া। আমাদের কাজ হচ্ছে জাতি পিতার স্বপ্নকে পূরণ করা। আওয়ামী লীগের পরিক্ষীত কর্মীরইা ক্ষুধা ও দ্রারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়ে তুলবে এটি আমার প্রত্যাশা।