ছারছীনা দারবার শরীফের ৩দিন ব্যাপী বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল শুরু

0
60
সময়ের বার্তা ডেস্ক।।

ছারছীনা দারবার শরীফের মরহুম পীর ছাহেব কেবলাদ্বয়ের ৩দিন ব্যাপী ঈছালে ছাওয়াব ও ছারছীনা মাদরাসার বার্ষিক মহাফিল গতকাল মাগরিব বাদ উদ্বোধন হয় । ১১,১২, ও ১৩ মার্চ তিনদিব ব্যাপী মাহফিল ১৩ মার্চ সোমবার বাদ জোহর আখেরী মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে। প্রতি বছরের ন্যায় এবারও উক্ত মাহফিলে দশ লক্ষাধিক লোকের সমাগম হবে বলে অনুমান করা হচ্ছে। উত্তরে মাগুরা খাল হতে দক্ষিনে স্বরূপকাঠী বন্দর ও নেছারাবাদ উপজেলার মধ্যস্থ দুই বর্গ কিলোমিটার এলাকা জুরে বিত্রিত।

মাহফিলে উদ্বোধনী বয়ান করেন ছারছীনা দারবার শরীফের বর্তমান গদ্দীনসীন পীর ছাহেব কেবলা হযরত মাওলানা শাহ্ মোহাম্মদ মোহব্বেুল্লাহ। পীর ছাহেব তার উদ্বোধনী বয়ানে বলেন বাংলাদেশ ও মুসলিম বিশে^র অন্যতম সমস্যা জঙ্গীবাদ ও উগবাদের উথানের সুমহান যুগে ছারছীনা দরবার শরীফের অবস্থন বরাবরের মত শান্তি, নিরাপত্তা ও ইসলামের আদর্শের উপর প্রতিষ্ঠিত। যা ইতোমধ্যেই সরকার সহ সর্ব মহলের আস্থা ও সুনাম অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। তাইতো ছারছীনা দরবার শরীফ ধর্মপ্রাণ আম জনতা সহ সুবিবেচক, শিক্ষিত ও ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত সর্ব শ্রেণির লোকদের মিলন কেন্দ্রে পরিণত হয়েছে।

 

এতভিন্ন তিনি প্রতিদিন বাদ মাগরিব ও বাদ ফজর জিকির পরিচালনা সহ আগত মুসল্লীদের তরীকার তা’লীম দিবেন এবং দুনিয়ার জীবনে শুচিশুদ্ধ গোনাহ মুক্ত জীবন যাপন ও তাকওয়া ভিক্তিক জিন্দেগী গঠন করে আখেরাতের কামিয়াবী হাসিল করার বিষয়ে দিক নিদ্যেশনা মূলক নসীহত পেশ করেন । তিনি সকলকে ছারছীনার মহরহুম পীর ছাহেব কেবলাদ্বয়ের অনুসৃত পথ ও মতে সঠিক সুন্নাতী আদর্শে ব্যাক্তি, পরিবারম সমাজ ও রাষ্ট্রীয় জীবন ঘটনে অনুপ্রাণিত করেন।

 

ছারছীনা দারবার শরীফের প্রতিষ্ঠাতা পীর কুত্বুল আলম হযরত মাওলানা শাহ্সূফী নেছার উদ্দীন আহমদ (রহ.) এর ৬৫ তম এবং তদীয় জানেসীন মুজাদ্দেদে যামান হযরত মাওলানা শহ্সূফী আবু জাফর মোহাম্মাদ ছালেহ (রহ.) এর ২৭তম মৃত্যু বার্ষিকী এবং ছারছীনা দারুস্সুন্নাত আলিয়া মাদরাসা ও ছারছীনা দারুস্সুন্নাত জামেয়ায়ে নেছারিয়া দীনিয়ার বার্ষিক মাহফিল উপলক্ষ্যে মাহফিল অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মাহফিলের কর্মসূচী অনুযায়ী প্রত্যহ বাদ ফজর হতে সারাদিন গভীর রাত পর্যন্ত ওয়াজ-নসীহত, জিকির-আজকার ও তা’লীম-তালকীন চলবে। মাহফিলের প্রথম দিনে বাদ জোহর মাদরাসার কৃতি ছাত্রদের কে উৎসাহিত করতে পুরস্কার প্রদান করা হবে। মাহফিলে ধর্মপ্রাণ মুসল্লীরা ছারাও প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত হন। এছাড়াও বহু ভি আই পি মাহফিলে আগমন করবেন বলে জানা গেছে।