করোনা সংক্রমণ এড়াতে সারাদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের দাবি শিক্ষার্থীদের

0
63

ববি প্রতিনিধি :: করোনা ভাইরাস বর্তমানে সারা বিশ্বে আতঙ্কের নাম।বাংলাদেশে ইতোমধ্যে তিন জন শনাক্তসহ কেয়ারেন্টাইনে আছন প্রায় ১২০০ জন। বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতে কেউ আক্রান্ত হলে দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে এমন আশঙ্কায় বিশ্ববিদ্যালয়সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের দাবি উঠেছে বুয়েট, ববি, ঢাবি, নোবিপ্রবি, বশেমুরবিপ্রবিসহ অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের।

শুক্রবার থেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে পোস্টের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও সরকারের কাছে খোলা চিঠির মাধ্যমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের দাবি জানাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা।

মূলত সরকারি ব্যবস্থাপনায় ঘাটতি ও সচেতনতার অভাবে দ্রুত শিক্ষার্থীদের মাঝে ছড়িয়ে পড়তে পারে এই ভাইরাস যার ফলে মুহুর্তের মধ্যেই আক্রান্ত হতে পারে হাজার হাজার শিক্ষার্থী এমন ভয়ে কেউ কেউ পরীক্ষা না থাকায় ক্যাম্পাস ছেড়ে বাড়ি চলে যাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা।

ক্যাম্পাস বন্ধ হবে কি না এ নিয়ে এখনো সিদ্ধান্তে আসতে পারে নি অধিকাংশ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন, তবে আপাতত সরকারি নির্দেশনার দিকে তাকিয়ে আছেন বলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

করোনা আতঙ্কের সর্বশেষ পরিস্থিতি জানতে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলতে পরিদর্শন করলে দেখা যায় শিক্ষার্থীর মুখে ভয়ের কালো ছাপ। ইতোমধ্যে অনেকেই প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র গুছিয়ে রেখেছেন বাড়ি ফেরার জন্য। একই অবস্থা পবিপ্রবিতেও, ক্যাম্পাসে যেনো অশুভ ছায়া ভর করেছ,যার কারণে অনেকটাই কমেছে জনসমাগম।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনেকটা মানষিক দুশ্চিন্তা ও আতঙ্কে আছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। তাই সক্রমন এড়াতে সেশনজটের আশঙ্কা থাকলেও আপাতত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা মঙ্গলজনক মনে করছেন প্রগতিশীল শিক্ষার্থীরা।