কলাপাড়া ঘড় ভাংচুর করে লুটপাট : মা ও ছেলেকে কুপিয়ে জখম

0
456

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অবৈধ্য ভাবে জমি দখল করাকে কেন্দ্র করে মা ও ছেলেকে কুপিয়ে ঘড় ভাংচুর ও লুটপাট করার অভিযোগ উঠেছে রেফাজ বিশ্বাস নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। সোমবার বিকেল ৫ টায় (১৪জানুয়ারি) কলাপাড়া উপজেলায় ধুলাসার গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত হচ্ছে ওই গ্রামের মনির হোসেন বিশ্বাসের স্ত্রী মমতাজ বেগম (৫০) ও সাদের পুত্র মাসুদ বিশ্বাস (৩৫)।

আহতের পরিবার সূত্রে জানাযায়, ঐ গ্রামে মনির হোসেন বিশ্বাসের ভোগ দখলকৃত বসত ঘড়, গোয়াল ঘড় ও আবাদি কৃষি জমি গায়ের জোর খাটিয়ে একই গ্রামের আশ্রাফ বিশ্বাসের পুত্র রেফাজ বিশ্বাস বেশ কিছুদিন ধরে অবৈধ্য ভাবে দখল করার পায়তারা চালায়। এ ঘটনায় ধুলাসার ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুল জলিল মাস্টার ও ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার বাহাদুর ভুইয়ার কাছে মনির হোসেন বিচার দেয়। কিন্তু তারা দু’পক্ষকে নিয়ে বসার বিভিন্ন তারিখ দিলে সেখানে আশ্রাফ বিশ্বাস ও তার ছেলেরা কেও উপস্থিত হয়। এদিকে গত সোমবার ক্ষমতার অপব্যবহার করে আশ্রাফ বিশ্বাস, রেফাজ বিশ্বাস, রাসেল বিশ্বাস, শাহিনুর বেগম সহ অজ্ঞাত ৫/৬ জন মিলে অতকৃত ভাবে মাসুদ বিশ্বাসের উপর ঝাপিয়ে পরে। তখন সে ডাক চিৎকার করলে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথারী পিটিয়ে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে ।

খবর পেয়ে মাসুদের মা মমতাজ তাকে উদ্ধার করতে গেলে তাকেও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এ সময় হামলা কারীরা মাসুদের ঘড় লুটপাট ও ভাংচুর করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা ঘটনা স্থলে ছুটে যায় এবং আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের অবস্থা আশঙ্কজনক হওয়ায় বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরন করে। বর্তমানে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জ লড়ছে মা ও ছেলে।

এ ঘটনা সত্যতা শিকার করে ধুলাসার ৩ নং ওয়ার্ডের মেম্বার বাহাদুর বলে, আমরা স্থানীয় ভাবে অনেকবার মিমাংশা করার চেষ্টা করেছি কিন্তু রেফাজ আমাদের কথা সুনেনা। মার পিটের বিষয়ে আমরা আহতরা সুস্থ হওয়ার পরে মিমাংশা করে দিবো।এ ব্যাপারে মহিপুর থানায় মামলা দায়েরের প্রস্থুতি চলছে বলে আহতের পরিবার জানায়।