কুয়াকাটায় দুই জেলেকে মধ্যযুগীয় নির্যাতনের ঘটনায় মামলা

0
156

কুয়াকাটা প্রতিনিধি।।

ফলোআপ

দাদনের টাকা পরিশোধ করতে না পারায় দুই জেলে নির্যাতনের ঘটনায় মামলা হয়েছে। গতকাল বুধবার মা ময়না বেগম মহিপুর থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

এদিকে দাদন ব্যবসায়ী কুদ্দুস মৃধাও দুই জেলেকে আসামী করে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে পাল্টা নির্যাতনের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেছেন। নির্যাতনের শিকার সহোদর দুই জেলে আবু তালেব (১৮) ও মুনসুর আলী হেলাল (২৫) কলাপাড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে পরিবার সুত্রে জানাগেছে।

মঙ্গলবার বেলা ১১ টার দিকে দাদন ব্যবসায়ী কুদ্দুস মৃধার দাদনের আট হাজার টাকা না পাওয়ার কারণে ওই দুই জেলেকে থাজুরা থেকে ধওে আনে। নিজের মালিকানাধীন মৃধা ফিস আড়তে রশি দিয়ে বেঁধে মধ্যযুগীয় শারিরীক নির্যাতন করা হয়। নির্যাতনের এক পর্যায়ে তারা অচেতন হয়ে পড়ে। দুই সন্তানের এমন বিপদের খবর শুনে মা ময়না বেগম ওইদিন সন্ধ্যায় টাকা পরিশোধের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাদের মুক্ত করেন। বুধবার বিষয়টি নিয়ে একাধিক পত্রিকায় সচিত্র প্রতিবেদন প্রকাশ হলে পুলিশ প্রশাসনে তোলপাড় শুরু হয়।

কলাপাড় হাসপাতালে চিকিসৎক জে এইচ খান লেলিন জানান, আঘাতের চিহেৃ ষ্পষ্ট নির্মম নির্যাতনের প্রমাণ মিলেছে। ওই দুই জেলের চিকিৎসা চলছে ।

মহিপুর থানার এস আই মো.মনিরুজ্জামান জানান, জেলে নির্যাতনের ঘটনায় পাঁচ জনকে আসামী করে একটি মামলা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।