জেলা প্রশাসনের পত্রে ‘বঙ্গবন্ধু’ বানান ভুল, ছবি তুলে ফেসবুকে দিলেন এমপি!

0
270

সাতক্ষীরায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপনের পর্যালোচনা সভায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে চার সংসদ সদস্যকে আমন্ত্রণপত্র দেয়া হয়। সেই আমন্ত্রণপত্রে ‘বঙ্গবন্ধু’ বানান ভুল লেখা হয়েছে।

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়েছে। শুধু তাই নয় পর্যালোচনা সভাটি স্থগিত করার জন্য পরে যে চিঠি দেয়া হয়েছে- তাতেও ‘বঙ্গবন্ধু’ বানান ভুল করা হয়েছে।

এদিকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে দেয়া ওই চিঠির ছবি তুলে ফেসবুকে দিয়েছেন সাতক্ষীরা-১ আসনের সংসদ সদস্য। তিনি লিখেছেন ‘অতিগুরুত্বপূর্ণ পত্রে বঙ্গবন্ধু বানান’।

তবে, বিষয়টি নিয়ে সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল তার ভেরিফাইড ফেসবুকে দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

এর আগে গত ৯ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপনে পর্যালোচনা সভা উপলক্ষে সাতক্ষীরার ৪ জন সংসদ সদস্যকে জেলা প্রশাসকের পক্ষে সহকারী কমিশনার ইন্দ্রজীত সাহা চিঠি পাঠান। চিঠিতে ১১ মার্চ বুধবার দুপুর ১২টায় পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে বলে জানানো হয়।

চিঠিতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামের বানান তিন স্থানে ভুলভাবে ‘বঙগবন্ধ’ লেখা হয়। সাতক্ষীরা-১ আসনের সংসদ সদস্য মুস্তফা লুৎফুল্লাহ তার ফেসবুকে আমন্ত্রণপত্রের ছবিসহ এ ধরণের ভুলের কথা উল্লেখ করেন। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সেটি ছড়িয়ে পড়ে।

চিঠিতে স্বাক্ষরকারী সহকারী কমিশনার ইন্দ্রজীত সাহা বলেন, অফিস সহকারী ভুল করে এমনটা করে ফেলেছেন। যদিও আমার এটা দেখা উচিৎ ছিলো। পরবর্তী চিঠিটিও পূর্বের চিঠি থেকে কপি করতে গিয়ে ভুল করে ফেলেছেন। এটা সম্পূর্ণভাবে অনিচ্ছাকৃত ‘করণিক মিসটেক’।

এদিকে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল ফেসবুকে লেখেন, ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান- এর জন্মশতবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস ২০২০ উদযাপন উপলক্ষ্যে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সাধারণ শাখা থেকে পর্যালোচনা সভার জারিকৃত নোটিশে বঙ্গবন্ধু বানানে করণিক ভুলের কারণে উ-কার পড়েনি, যা অনিচ্ছাকৃত ভুল। এ ধরণের ভুল কোনমতেই কাঙ্খিত নয়। অনাকাঙ্খিত এ ভুলের জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি।‘