বাংলাদেশের দরকার ১৯৬

0
630
South African batsmen Quinton de Kock eyes the ball during the 3rd ODI match at the Buffalo Park, in East London, on October 23, 2017. / AFP PHOTO / MICHAEL SHEEHAN (Photo credit should read MICHAEL SHEEHAN/AFP/Getty Images)

সময়ের বার্তা ডেস্ক।।

আবারও ধারহীন বোলিং টাইগারদের। টেস্ট, ওয়ানডের পর প্রথম টি-টোয়েন্টিতেও বিবর্ণ বোলিংয়ে রান উৎসবে মাতলো দক্ষিণ আফ্রিকা। ব্লুমফন্টেইনে বৃহস্পতিবার প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ৩০ ওভারে চার ‍উইকেট হারিয়ে ১৯৫ রানের বিরাট স্কোর গড়ে তুলল স্বাগতিকরা।

প্রোটিয়াদের পক্ষে কুইন্টন ডি কক ৫৯, এবি ডি ভিলিয়ার্স ৪৯, ডেভিড মিলার ২৫ ও ফারহান বিহারডাইন ৩৬ রান করেন। বাংলাদেশের পক্ষে সাকিব আল হাসান ১টি, মেহেদী হাসান মিরাজ ২টি ও রুবেল হোসেন ১টি করে উইকেট নেন।

যদিও ইনিংসের শুরুতে ব্রেক থ্রু এনে দিয়েছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। কিন্তু পরে সে ধারাবাহিকতা টিকে থাকেনি। দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে হাশিম আমলাকে বোল্ড করেন মিরাজ। চার বল খেলে তিন রান করেন আমলা।

এরপর কুইন্টন ডি কক ও এবি ডি ভিলিয়ার্সের দাপুটে ব্যাটিংয়ে উড়তে থাকে দক্ষিণ আফ্রিকা। দশম ওভারে দলের রান যখন ৯৭ তখন মেহেদী হাসান মিরাজের বলে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের হাতে ধরা পড়েন এবি ডি ভিলিয়ার্স। ২৭ বল খেলে ৪৯ রান করেন তিনি।

দলীয় ১২২ রানে সাকিব আল হাসানের বলে ইমরুল কায়েসের হাতে ক্যাচ হন জেপি ডুমিনি। ১০ বল খেলে ১৩ রান করেন তিনি। ইনিংসের ১৫তম ওভারে রুবেল হোসেনের বলে এলবিডব্লিউ হন কুইন্টন ডি কক। ৪৪ বল খেলে ৫৯ রান করেন। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে ডি ককের দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরি এটি।

এই ম্যাচে বাংলাদেশ দলের অধিনায়কত্ব করছেন সাকিব আল হাসান। আর দক্ষিণ আফ্রিকার দলের অধিনায়কের দায়িত্বে রয়েছেন জেপি ডুমিনি।

এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুই ম্যাচ টেস্ট ও তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয় বাংলাদেশ দল। টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় তথা শেষ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৯ অক্টোবর।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

দক্ষিণ আফ্রিকা: ১৯৫/৪ (২০ ওভার)

(কুইন্টন ডি কক ৫৯, হাশিম আমলা ৩, এবি ডি ভিলিয়ার্স ৪৯, জেপি ডুমিনি ১৩, ডেভিড মিলার ২৫*, ফারহান বিহারডাইন ৩৬*; সাকিব আল হাসান ১/২৮, মেহেদী হাসান মিরাজ ২/৩১, রুবেল হোসেন ১/৩৪, তাসকিন আহমেদ ০/২১, শফিউল ইসলাম ০/৩৩, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ০/২০, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ০/২৩)।