বিশ্বকাপে পছন্দসই জার্সি নম্বর পাক ক্রিকেটারদের

0
262

কুসংস্কারকে যতোই দূরে রাখার কথা বলা হোক না কেন, বিজ্ঞানের চরম উন্নতির এই যুগেও অনেকেই অনেক কুসংস্কারকে বুকে ধারণ করে শান্তি পান। পাকিস্তান জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও এর বাইরে নন। যে কোনো বড় আসরের আগে দলের ক্রিকেটারদের তাদের পছন্দের জার্সি বেছে নেওয়ার সুযোগ করে দেয় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। আর জার্সি নম্বরের বদৌলতে ভাগ্য সুপ্রসন্ন হবে, এমন বিশ্বাস থেকে পাকিস্তানি ক্রিকেটাররাও নিজ নিজ পছন্দের জার্সি বেছে নেয়। আসন্ন বিশ্বকাপ ক্রিকেটেও এর ব্যতিক্রম ঘটছে না। এই বিশ্বকাপেও ক্রিকেটারদের পছন্দের জার্সি বেছে নেওয়ার সুযোগ দিয়েছে পিসিবি; ক্রিকেটাররা বেছে নিয়েছেন নিজ নিজ পছন্দের নম্বর। এই পছন্দের ক্ষেত্রে ধর্মীয় পরামর্শকের (যেমন : পীর) ধারস্থও হয়েছেন তারা।

ভারতের এনডিটিভির দেওয়া তথ্যানুসারে, পাকিস্তান দলের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান উমর আকমল অনেক দিন ধরেই ক্রিকেট মাঠে ফর্ম খুঁজে পাচ্ছেন না। যে কারণে হতাশায় রয়েছেন তিনি। তবে বিশ্বকাপে এই হতাশা ঝেড়ে ফেলে সন্মরণীয় পারফরম্যান্স করতে চান আকমল। আর তাই এক পীরের পরামর্শে আগের ৯৬ নম্বর জার্সি পরিবর্তন করে ৩ নম্বর জার্সি বেছে নিয়েছেন সদ্যই কন্যা সন্তানের পিতা হওয়া এই তরুণ পাকিস্তানি ক্রিকেটার।

এদিকে, আরেক তরুণ ক্রিকেটার হারিছ সোহেল বেছে নিয়েছেন ৮৯ নম্বরকে। তার পূর্বের জার্সি নম্বর ছিল ৮০। এভাবেই পেসার ওয়াহাব রিয়াজ নিয়েছেন ৪৭ নম্বর জার্সি, ইহসান আলি ৯১ নম্বর জার্সি। তবে দলের তিন সিনিয়র ক্রিকেটার অধিনায়ক মিসবাহ-উল-হক, অলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদি ও ব্যাটিং স্পেশালিস্ট ইউনুস খান আগের জার্সি নম্বরই রাখছেন বিশ্বকাপে। মিসবাহর জার্সি নম্বর ২২, আফ্রিদির ১০ এবং ইউনুসের নম্বর ৭৫।