ভোলার ভেদুরিয়ায় সুদ-ঘুষের বিরুদ্ধে বয়ান করায় ইমাম লাঞ্ছিত

0
157

হারুন শাহ, ভোলা ॥ মুসলিম প্রধান দেশ বাংলাদেশ, ইমামরা গ্রামের বাদশা হওয়ার কথা হলেও বাংলাদেশে সবচেয়ে কম বেতনে চাকুরী করেন ইমামগণ। আর বিভিন্ন মসজিদে অশিক্ষিত মুসুল্লিদের ধারা লাঞ্ছিত হয়ে মুখ বুঝে আল্লাহ্র কাছে বিচার দিয়ে চুপ থাকেন ইমামরা।

গ্রামের কিছু ইমামরা আছেন যারা সুদ, ঘুষের বয়ান করলে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠেন মানুষরূপী কিছু মুসুল্লিরা আর এমনই ঘটনা ঘটেছে ভোলা সদর উপজেলার ভেদুরিয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ফরাজী বাড়ী দরজা জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা নুরনবীর মাথে। বর্তমানে ঐ মসজিদ ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা বন্ধ রয়েছে এবং ইমাম কে লাঞ্ছিত কারী স্থানীয় প্রভাবশালী আনসার হাওলাদারের শাস্তির দাবীতে বিক্ষোভ করেছে মুসুল্লি ও মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা।

রবিবার সকালে ভেদুরিয়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডে গিয়ে জানা যায়, প্রভাবশালী আনসার হাওলাদারের ক্ষমতার দাপট আর সেই দাপট দেখাচ্ছেন মসজিদের ইমামগণের সাথে এর আগেও দুইজন ইমাম কে লাঞ্ছিত করে মসজিদ থেকে বিদায় করেছেন বলে জানিয়েছেন মুসুল্লিরা, এলাকার মুসুল্লিরা যেন অসহায় প্রভাবশালী আনসারের কাছে। মুসুল্লিরা বলেন, হুজুর সুদ ঘুষের ওয়াজ কেনো করে?

এই জন্য তাদের গালমন্দ করেন এবং কিছু হলেই মারতে জান আর আমরা যারা হুজুরের পক্ষ নিয়ে কথা বলি তাদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে আনসার হাওলাদার ও তার ছেলেরা। আনসার হাওলাদারের আপন ভাতিজা লোকমান হোসেন বলেন আমার চাচা হুজুরদের সাথে এমন খারাপ আচরণ করায় আমি প্রতিবাদ করি এই জন্য আমাকে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে আমার চাচা, এমন কি আমার বাবা মসজিদের সাধারন সম্পাদক রুহুল আমিন হাওলাদার কে আমার চাচাতো ভাই আলাউদ্দিন গতকাল ে ২য় পৃষ্ঠায় দেখুন