মৃত মায়ের নামে বিধবা ভাতা নিচ্ছেন ছেলে

0
116

বাউফল: বৃদ্ধা মায়ের মৃত্যুর সাত বছর পার হয়ে গেলেও তাকে জীবিত দেখিয়ে নিয়মিত বিধবা ভাতা তুলছেন তার গ্রাম পুলিশ ছেলে। পটুয়াখালীর বাউফলের মৃত ওই বৃদ্ধার নাম ময়ফুল বেগম।

তিনি বাউফল পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ড শের-ই-বাংলা রোড এলাকার মৃত মোঃ ইউনুস মুন্সির স্ত্রী ছিলেন। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃদ্ধা ময়ফুল বেগম প্রায় সাত বছর পূর্বে মারা গেছেন।

মৃত্যুর আগে থেকেই তিনি উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের বিধবা ভাতার তালিকাভুক্ত ছিলেন। আর সেই সুযোগকেই কাজে লাগিয়ে ওই বৃদ্ধার মৃত্যুর পরও দীর্ঘ ৭ বছর ধরে তার নামে বিধবা ভাতার টাকা উত্তোলন করে

আসছিলেন ছেলে দাশপাড়া ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ সদস্য শহিদুল ইসলাম বাচ্চু।

উপজেলা সমাজসেবা অফিস ও সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের অসাধু কিছু কর্মকর্তাদের যোগসাজশেই এ কাজ ধরনের কাজ হচ্ছে বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। সরকারি বিধি অনুযায়ী ওই বৃদ্ধার মারা যাওয়ার পরে ভাতা উত্তোলন বন্ধ হয়ে যাওয়ার কথা।

কিন্তু সুকৌশলে ওই বৃদ্ধার মৃত্যুকে অসুস্থ্য দেখিয়ে নমিনি হিসেবে তার ছেলে শহিদুল নিয়মিত ভাতা উত্তোলন করছেন। সর্বশেষ গত জুন মাসেও সোনালী ব্যাংক বাউফল শাখার ৪৩০৬১১০০১৫০৩৮ নং হিসাব থেকে টাকা উত্তোলন করেন শহিদুল।

মৃত মায়ের নামে অবৈধভাবে বিধবা ভাতা উত্তোলন করে সরকারি টাকা আত্মসাতের বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত গ্রাম পুলিশ সদস্য মোঃ শহিদুল ইসলাম বাচ্চু জানান, ‘আমার মা প্রায় তিন বছর হয় মারা গেছে, আমি কোন ভাতার টাকা তুলি নাই এই কথা বলে ফোন কেটে দেয়’।