ম্যাস-বাসী ছাত্রদের পাশে দাঁড়িয়েছে ছাত্র ইউনিয়ন

0
143

ম্যাস-বাসী ছাত্রদের পাশে দাঁড়িয়েছে ছাত্র ইউনিয়ন। বরিশাল নগরীতে সরকারি বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নগরীর বাহিরের উপজেলা ও গ্রাম সহ নানা বিভাগের থেকে প্রায় ৩০-৪০ হাজার শিক্ষার্থী বরিশালে লেখা পড়া করতে আসেন।

এর একটি বড় অংশ থাকছে হোস্টেলে,ম্যাসে অথবা ভাড়া বাসা নিয়ে।

বিশ্ব মহামারির এই দুঃসময়ে সবাই যখন মানবতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে ঠিক সেই সময় বাড়ি ভাড়ার টাকার জন্য হাত বাড়িয়ে দিলেন বাড়ির মালিকরা।

এই সকল ম্যাসে থাকা শিক্ষার্থীদের প্রায় সকলেরই থাকা খাওয়ার খরচ নির্বাহ করতে হয় টিউশন পড়িয়ে।

কিন্তু লকডাউনের কারনে নেই তাদের একমাত্র আয়ের উৎসটিও।

পরিবহন সংকটের কারনে তারা ফিরতে পারছে না বাড়িতেও আর পরিবারের অস্বচ্ছতায় তার শহর জীবনের প্রাত্যহিক খরচের টাকাও পাঠাতে পারছে না তাদের অধিকাংশ পরিবার।

ইতোমধ্যে ধারণা করা হচ্ছে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকতে পারে এতে বিপাকে পরেছে এই সকল শিক্ষার্থী।

এমতাবস্থায় চলমান পরিস্থিতি বিবেচনায় রেখে মার্চ থেকে লকডাউন চলা পর্যন্ত মাসগুলোর বাড়িভাড়া মওকুফ করার জন্য ম্যাস মালিকদের নোটিশ করার দাবী জানিয়ে জেলা প্রশাসক বরাবরে স্মাকল লিপি দিয়েছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন বরিশাল জেলা সংসদ ও সরকারি ব্রজমোহন কলেজ সংসদ।

জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারক লিপি হস্তান্তর করেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন বরিশাল জেলা সংসদের সভাপতি সম্পা দাস, সরকারি ব্রজমোহন কলেজ সংসদের সভাপতি কিশোর চন্দ্র বালা, জেলার কোষাধ্যক্ষ জয়দেব সাহা ও প্রীতিলতা বিগ্রেড বরিশাল জেলার যুগ্ম আহবায়ক নদী দাস।