সরকারি চাকরিজীবীদের কর্মস্থল ত্যাগ না করার নির্দেশ

0
21

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবেলায় ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। তবে এই ছুটিকালীন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিজ নিজ কর্মস্থল ত্যাগ না করার নির্দেশ দিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।

জরুরি প্রয়োজনে যে কোনো সরকারি দফতর খোলা রাখা যাবে। এমনকি প্রয়োজনে চালু থাকবে ওষুধ ও রফতানি শিল্প-কারখানা।

মঙ্গলবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একাধিক আদেশে এমন তথ্য জানানো হয়েছে।

এই বিষয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব শেখ ইউসুফ হারুন মঙ্গলবার যুগান্তরকে বলেন, করোনার কারণে সার্বিক বিষয় বিবেচনা করে সরকার সবাইকে ঘরে থাকতে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। কিন্তু এলাকা ত্যাগ করার জন্য বলা হয়নি। অথচ অনেকে গ্রামের বাড়ি যেতে ট্রেন, বাস ও লঞ্চঘাটে প্রচণ্ড ভিড় করছেন, যা কাঙ্ক্ষিত নয়। এ কারণে আমাদের এ সব নির্দেশনা জারি করতে হল।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের এক আদেশে বলা হয়, দেশব্যাপী করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবেলা এবং ব্যাপক বিস্তার প্রতিরোধকল্পে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে ২৬ মার্চ সরকারি ছুটি এবং ২৭ ও ২৮ মার্চ সাপ্তাহিক ছুটির সঙ্গে ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হল। ৩ ও ৪ এপ্রিল সাপ্তাহিক ছুটির দিন এ ছুটির সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে।

কাঁচাবাজার, খাবার, ওষুধের দোকান, হাসপাতাল এবং জরুরি পরিসেবার (বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস, ফায়ার সার্ভিস, পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট ইত্যাদি)- ক্ষেত্রে এ ব্যবস্থা প্রযোজ্য হবে না।

পাশাপাশি জরুরি প্রয়োজনে অফিস খোলা রাখা যাবে। প্রয়োজনে ওষুধ শিল্প ও রফতানি শিল্প-কারখানা চালু রাখতে পারবে বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে।

এতে আরও বলা হয়, জনগণের প্রয়োজন বিবেচনায় ছুটিকালীন বাংলাদেশ ব্যাংক সীমিত আকারে ব্যাংকিং ব্যবস্থা চালু রাখার প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেবে।

জনপ্রশাসনের অপর এক আদেশে বলা হয়, ‘করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও প্রাদুর্ভাব মোকাবেলায় প্রযোজনীয় সহযোগিতা প্রদানের জন্য সরকার কর্তৃক ১০ দিনের সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে। এই সময়ে সব মন্ত্রণালয় ও বিভাগ এবং এর অধীনস্থ সব দফতর, সংস্থা ও প্রাতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিজ নিজ এলাকা ত্যাগ না করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হল।’

এ দিকে, মঙ্গলবার বিকালে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত অনলাইন লাইভ ব্রিফিংয়ে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা জানান, দেশে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ জনে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৬ জন। এতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৯ জনে।